banglanewspaper

বর্তমানে করোনা মহামারীর হটস্পট হিসেবে যে কয়টি দেশ শীর্ষে রয়েছে তার মধ্যে দক্ষিণ আমেরিকান দেশ ব্রাজিল অন্যতম। কিন্তু তা সত্বেও খুব শিগগিরই বন্ধ হয়ে যাওয়া ফুটবল মৌসুম পুনরায় শুরু করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ব্রাজিলিয়ান প্রেসিডেন্ট জেয়ার বোলসোনারো। করোনা নিয়ে এর আগে বিভিন্ন বিতর্কিত মন্তব্য করে বোলসোনারে বারবার সমালোচিত হয়েছেন। ফুটবল ফেরানোই যেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টের একমাত্র ধ্যানজ্ঞান হয়ে দাঁড়িয়েছে।

লাতিন আমেরিকায় করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ দেশগুলোর মধ্যে ব্রাজিল শীর্ষে অবস্থান করছে। প্রতিদিনই সেখানে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। ইতোমধ্যেই ব্রাজিল করোনায় মৃত্যুতে ইতালিকে ছাড়িয়ে গেছে। সর্বোচ্চ আক্রান্তের তালিকায় ব্রাজিল বর্তমানে পঞ্চম স্থানে। করোনার কারণে মধ্য মার্চ থেকে ব্রাজিলে সব ধরনের ফুটবল বন্ধ আছে। কিন্তু বোলসোনারো সম্প্রতি স্থানীয় রেডিওতে বলেছেন, 'ফুটবলারদের বয়স যেহেতু কম সে কারণে করোনায় তাদের মৃত্যু ঝুঁকিও অন্যান্যদের তুলনায় অনেক কম।'

ফুটবল সব সময়ই ব্রাজিলকে বিভিন্নভাবে এগিয়ে নিয়ে যেতে সহযোগিতা করেছে। বোলসোনারো আরো বলেছেন, ফুটবল মাঠে গড়ালে মানুষের চাকুরী হারানোর শঙ্কা কিছুটা হলেও কমানো যাবে। খেলোয়াড়রা হয়তো কোনোভাবে নিজেদের জীবন চালিয়ে নেবে, কিন্তু তারপরেও কিছু কিছু প্রাদেশিক লিগের খেলোয়াড়দের ওপর তাদের পুরো পরিবার নির্ভরশীল। কিন্তু সমস্যা হলো, ব্রাজিলের রাজনীতি অনুযায়ী ফুটবল পুনরায় শুরু করার ব্যপারে বোলসোনারো একক সিদ্ধান্ত নিতে পারেন না।

ফুটবল শুরু করতে হলে প্রাদেশিক সরকার ও মিউনিসিপ্যালিটির অনুমতিও লাগবে। ব্রাজিলে ফুটবল মৌসুম শুরুর ব্যপারে এখনো শক্ত কোন পরিকল্পনা নেয়া হয়নি। গত ১৯ মে বোলসোনারো ও তার ছেলে রিওর দুই শীর্ষ ক্লাব ভাস্কো দা গামা ও ফ্লামেঙ্গোর সাথে আলোচনা করেছেন। যা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পরবর্তীতে ভাইরাল হয়েছিল। রিওর অপর দুই বড় ক্লাব ফ্লুমিনেন্স ও বোটাফোগো জানিয়েছে মৌসুম শুরু করা সম্পর্কে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না।

ট্যাগ: bdnewshour24