banglanewspaper

ফরিদপুর প্রতিনিধি: হাইওয়ে পুলিশের কনস্টেবলকে মারধরের ঘটনায় আওয়ামী লীগের এক নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার নাম মীর্জা ইমরুল কায়েশ।

শুক্রবার সকালে ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার পেঁয়াজ বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি মধুখালী পৌর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক। এছাড়া গ্রেপ্তার মির্জা ইমরুল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের সভাপতি মির্জা মনিরুজ্জামানের ভাই।

জানা গেছে, মাদারিপুর হাইওয়ে পুলিশে কর্মরত নাজমুল হোসাইনের গ্রামের বাড়ি মধুখালীতে। আজ সকালে তিনি বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি করতে যান। আওয়ামী লীগ নেতা ইমরুলের আড়তে পেঁয়াজ বিক্রিও করেন। কিন্তু পেঁয়াজ বিক্রির টাকা না দিয়ে নানান তালবাহানা শুরু করেন ইমরুল। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আড়তের কয়েকজন শ্রমিক ও আওয়ামী লীগ নেতা ইমরুল পুলিশ সদস্যকে মারধর করেন। ঘটনা জানতে পেরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে নাজমুলকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এসময় অভিযুক্ত আওয়ামী লীগ নেতাকে আটক করা হয়।

মধুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল রহমান বলেন, এ ঘটনায় পুলিশ সদস্য নাজমুলের মামা মোস্তাক আহমেদ বাদী হয়ে ইমরুলসহ কয়েকজনকে   আসামি করে মারপিটের অভিযোগে একটি মামলা করেছেন। এ মামলায় ইমরুলকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

এদিকে থানা সূত্রে জানা গেছে, এর আগেও আওয়ামী লীগের এই নেতা পুলিশকে মারধর করেছিলেন। বর্তমানে তিনি সেই মামলায় জামিনে আছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24