banglanewspaper

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া মহামারি করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) স্তব্ধ গোটা দুনিয়া। মহামারি মোকাবিলায় দেশে দেশে চলছে লকডাউন, জরুরি অবস্থাসহ নানা বিধি নিষেধ। যদিও কিছু দেশ সংক্রমণ কমতে থাকায় লকডাউন শিথিল করছে। তারপরও এতে পুরো দুনিয়া বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। গত ডিসেম্বরে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বজুড়ে। এরপর ছয় মাস পেরোলেও নিয়ন্ত্রণের কোনও লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। যদিও এর ভ্যাকসিন আবিষ্কারে উঠে পড়ে লেগেছেন বিজ্ঞানীরা। এখন পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৯৩ লাখ ছাড়িয়েছে। মারা গেছে ৪ লাখ ৮০ হাজারের বেশি। তবে এর মধ্যেও আশার ব্যাপার হলো এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেছে অর্ধলক্ষেরও বেশি মানুষ।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ৮০ হাজার ৯৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৪৬৫ জনের। এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছে ৯৩ লাখ ৬৯ হাজার ২২৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৬২ হাজার ৯৯৪ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ৫০ লাখ ৬০ হাজার ৫৪৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ১ লাখ ১৯ হাজার ৮০৯ জন।  

বিশ্বে বর্তমানে ৩৮ লাখ ২৮ হাজার ৫৮৫ জন শনাক্ত করোনা রোগী রয়েছে। তাদের মধ্যে ৩৭ লাখ ৭০ হাজার ৫৭২ জন চিকিৎসাধীন, যাদের অবস্থা স্থিতিশীল। আর বাকি ৫৮ হাজার ১৩ জনের অবস্থা গুরুতর, যাদের অধিকাংশই আইসিউতে রয়েছে।

করোনা ভাইরাসে বর্তমানে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে মোট আক্রান্ত ২৪ লাখ ২৪ হাজার ৪৯২, সুস্থ হয়েছে ১০ লাখ ২০ হাজার ৪১২, মারা গেছে ১ লাখ ২৩ হাজার ৪৭৬ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু এবং আক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রে। আর করোনার উৎপত্তিস্থল চীনে আক্রান্ত ৮৩ হাজার ৪৩০, সুস্থ হয়েছে ৭৮ হাজার ৪২৮, মারা গেছে ৪ হাজার ৬৩৪ জন। 

দক্ষিণ এশিয়ায় ভারতে আক্রান্ত ৪ লাখ ৫৬ হাজার ৫৫২, সুস্থ হয়েছে ২ লাখ ৫৮ হাজার ৬৮৫, মারা গেছে ১৪ হাজার ৪৮৩ জন। পাকিস্তানে আক্রান্ত ১ লাখ ৮৮ হাজার ৯২৬, সুস্থ হয়েছে ৭৭ হাজার ৭৫৪, মারা গেছে ৩ হাজার ৭৫৫ জন। বাংলাদেশে আক্রান্ত ১ লাখ ১৯ হাজার ১৯৮, সুস্থ হয়েছে ৪৭ হাজার ৬৩৫, মারা গেছে ১ হাজার ৫৪৫ জন।

ট্যাগ: bdnewshour24