banglanewspaper

ব্রিটিশ জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ও ক্যাবিনেট সেক্রেটারি মার্ক সেডউইল পদত্যাগ করেছেন। খবরটি ব্রিটেনের সরকারি ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। তিনি রবিবার (২৮ জুন) রাতে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে নিজের পদত্যাগের কথা জানিয়েছেন। করোনা ভাইরাস মোকাবেলা নিয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মতবিরোধের জেরে তার এই পদত্যাগ বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর বিবিসি।

একইসঙ্গে এটাও জানানো হয় যে সেডউইল ব্রিটিশ ক্যাবিনেট সেক্রেটারি এবং সিভিল সার্ভিসের প্রধানের পদ থেকেও পদত্যাগ করবেন। তিনি আগামী সেপ্টেম্বর নাগাদ ক্যাবিনেট সেক্রেটারি থেকে সরে দাঁড়াবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জনসন সেডউইলের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন। পাশাপাশি ব্রেক্সিট বিষয়ক ব্রিটিশ প্রধান আলোচন ডেভিড ফ্রস্ট জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে সেডউইলের স্থলাভিষিক্ত হবেন বলেও জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।

এর মাত্র একদিন আগেই প্রধানমন্ত্রী জনসন তার মন্ত্রিসভায় রদবদল করতে চান বলে জানিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রীর এ ঘোষণার পরই পদত্যাগ করলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ও মন্ত্রিপরিষদ সচিব মার্ক সেডউইল।

২০১৭ সাল থেকে যুক্তরাজ্যের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন সেডউইল। তাকে এই পদে নিয়োগ দিয়েছিলেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। ২০১৮ সালের নভেম্বরে স্যার জেরমি হেইউড মারা যাওয়ার পর স্বল্প সময়ের নোটিশে সেডউইলকে মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসেবেও নিয়োগ দেয়া হয়।

২০ বছরের কূটনৈতিক ক্যারিয়ারে তিনি আফগানিস্তানে ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, সম্প্রতি করোনা মহামারি প্রতিরোধের উপায় নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সঙ্গে তার উপদেষ্টাদের মতবিরোধ শুরু হয়েছে। এর জের ধরেই জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদ থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন মার্ক সেডউইল।

ট্যাগ: bdnewshour24