banglanewspaper

করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) স্তব্ধ গোটা দুনিয়া। বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া এই ভাইরাস মোকাবিলায় দেশে দেশে চলছে লকডাউন, জরুরি অবস্থাসহ নানা বিধি নিষেধ। যদিও কিছু দেশ সংক্রমণ কমতে থাকায় লকডাউন শিথিল করছে। তারপরও এতে পুরো দুনিয়া বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। গত ডিসেম্বরে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বজুড়ে। এরপর ছয় মাস পেরোলেও নিয়ন্ত্রণের কোনও লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। যদিও এর ভ্যাকসিন আবিষ্কারে উঠে পড়ে লেগেছেন বিজ্ঞানীরা। এখন পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা এক কোটি ৮ লাখ ছাড়িয়েছে। মৃতের সংখ্যাও ছাড়িয়ে গেছে ৫ লাখ ১৯ হাজার। তবে এর মধ্যেও আশার ব্যাপার হলো এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেছে সাড়ে ৬০ লাখেরও বেশি মানুষ।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বজুড়ে এখন পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ১৯ হাজার ২৬৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৮৪৭ জনের। আক্রান্ত হয়েছে ১ কোটি ৮ লাখ ১৯ হাজার ৫৯৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৯৬ হাজার ৯০১ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ৬০ লাখ ৪০ হাজার ৩০৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ১ লাখ ৩২ হাজার ৭৫৮ জন।  

বিশ্বে বর্তমানে ৪২ লাখ ৬০ হাজার ২৬ জন শনাক্ত করোনা রোগী রয়েছে। তাদের মধ্যে ৪২ লাখ ২ হাজার ৮৮ জন চিকিৎসাধীন, যাদের অবস্থা স্থিতিশীল। আর বাকি ৫৭ হাজার ৯৩৮ জনের অবস্থা গুরুতর, যাদের অধিকাংশই আইসিউতে রয়েছে।

করোনা ভাইরাসে বর্তমানে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে মোট আক্রান্ত ২৭ লাখ ৭৯ হাজার ৯৫৩, সুস্থ হয়েছে ১১ লাখ ৬৪ হাজার ৬৮০, মারা গেছে ১ লাখ ৩০ হাজার ৭৯৮ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু এবং আক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রে। আর করোনার উৎপত্তিস্থল চীনে আক্রান্ত ৮৩ হাজার ৫৩৭, সুস্থ হয়েছে ৭৮ হাজার ৪৮৭, মারা গেছে ৪ হাজার ৬৩৪ জন। 

দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে খারাপ অবস্থা ভারতের। সেখানে আক্রান্ত ৬ লাখ ৫ হাজার ৭৭৫, সুস্থ হয়েছে ৩ লাখ ৫৯ হাজার ৯৯৫, মারা গেছে ১৭ হাজার ৮৫৫ জন। পাকিস্তানে আক্রান্ত ২ লাখ ১৭ হাজার ৮০৯, সুস্থ হয়েছে ১ লাখ ৪ হাজার ৬৯৪, মারা গেছে ৪ হাজার ৪৭৩ জন। বাংলাদেশে আক্রান্ত ১ লাখ ৪৯ হাজার ২৫৮, সুস্থ হয়েছে ৬২ হাজার ১০৮, মারা গেছে ১ হাজার ৮৮৮ জন।

ট্যাগ: bdnewshour24