banglanewspaper

লাদাখের গালওয়ান সীমান্তে ওৎ পেতে বসে রয়েছে চীন সেনারা। ভারত-চীন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে উত্তেজনা এখনও অব্যাহত। আর তার জেরেই নিজের স্বপ্নের প্রজেক্ট ‘লাল সিং চাড্ডা’ নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিলেন আমির খান।

সূত্রের খবর, আমির খানের বহু প্রতীক্ষিত ছবি ‘লাল সিং চাড্ডা’র শুটিং লাদাখে হওয়ার কথা ছিল। একেই করোনা আবহে লকডাউনের জেরে ছবির শুটিং পিছিয়েছে। উপরন্তু এখনও বাকি ছবির বেশ কিছু অংশের শুটিং। সেটারই শুটিং লোকেশন ছিল লাদাখ। কিন্তু এই মুহূর্তে গালওয়ান সীমান্তে যা অবস্থা, তাতে লাদাখে কোনও মতেই শুটিং করা সমীচীন হবে না বলে মনে করছে ‘লাল সিং চাড্ডা’র টিম। 

সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই নাকি কার্গিলে শুটিং হওয়া নিয়ে ‘লাল সিং চাড্ডা’র পরিচালক অদ্বৈত চন্দনের সঙ্গে কথা বলেছেন আমির খান। শুধু সীমান্ত সংঘাতই নয়, দেশজুড়ে যেভাবে করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলেছে, তাতে এই মুহূর্তে আউট ডোর লোকেশনে শুটিং শুরু করা ঠিক হবে কিনা, সেই বিষয়েও কথাবার্তা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

অন্যদিকে আমির ঘনিষ্ঠ এক ব্যক্তির বক্তব্য, “এই মুহূর্তে লাদাখে যা অবস্থা তাতে শুট করার কোনও প্রশ্নই আসে না! কিন্তু তার বদলে কার্গিলেই শুটিং হবে নাকি বেছে নেওয়া হবে অন্য কোনও লোকশন, তা নিয়ে চূড়ান্ত কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি এখনও পর্যন্ত।” 

উল্লেখ্য, চলতি বছরের নভেম্বর কিংবা ডিসেম্বরেই মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল ‘লাল সিং চাড্ডা’ সিনেমাটির, তবে করোনা আতঙ্কে লকডাউনের জেরে সিনেমার শুটিংই এখনও অনেকটা বাকি। অতঃপর, এবছর যে ‘লাল সিং চাড্ডা’র মুক্তি আপাতত মুক্তি পাচ্ছ না তা ধরেই নেওয়া যায়!

প্রসঙ্গত, ১৯৯৪ সালের মুক্তিপ্রাপ্ত টম হ্যাংক অভিনীত ছবি ‘ফরেস্ট গাম্প’-এর আদলে তৈরি হচ্ছে ‘লাল সিং চাড্ডা’। তবে হলিউড ক্লাসিকের রিমেক হলেও আদ্যোপান্ত ভারতের প্রেক্ষাপটে লেখা হয়েছে এই ছবির কাহিনি।

ট্যাগ: bdnewshour24