banglanewspaper

কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করার লক্ষ্যে আমেরিকার সঙ্গে নতুন করে আলোচনার সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। পিয়ংইয়ং বলেছে, এ ধরনের আলোচনাকে ওয়াশিংটন কেবলমাত্র তার ‘রাজনৈতিক হাতিয়ার’ হিসেবে ব্যবহার করে। দেশটির উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী চোয়ে সন হুই এক বিবৃতিতে এ মন্তব্য করেছেন বলে রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ জানিয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, ওয়াশিংটন ও পিয়ংইয়ংয়ের মধ্যকার থমকে যাওয়া পরমাণু আলোচনা আবার শুরু করলেও কোনো ফল পাওয়া যাবে না বলে উত্তর কোরিয়ার আমেরিকা সংক্রান্ত নীতিতে কোনো পরিবর্তন আসবে না।

চোয়ে সন হুই বলেন, “উত্তর কোরিয়া-আমেরিকা সংলাপকে ওয়াশিংটন তার রাজনৈতিক সংকট উত্তরণের হাতিয়ার ছাড়া অন্য কিছু ভাবে না; কাজেই আমেরিকার সঙ্গে মুখোমুখি বৈঠকে করার কোনো প্রয়োজনীয়তা আমরা দেখছি না।”

তিনি বলেন, আমেরিকার প্রেসিডেন্টকে নির্বাচনে জয়ের হাতিয়ার হিসেবে আলোচনাকে ব্যবহার করার সুযোগ দেবে না পিয়ংইয়ং।

উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে স্থগিত হয়ে যাওয়া পরমাণু আলোচনা আবার চালু করার উপায় নিয়ে কথা বলতে যখন আগামী সপ্তাহে মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্টিফেন বিগান দক্ষিণ কোরিয়া সফরে যাচ্ছেন তখন পিয়ংইয়ং নিজের অবস্থান স্পষ্ট করল।    

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন গত বুধবার এ আভাস দিয়েছিলেন যে, আগামী নভেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনের মধ্যে আরেকটি বৈঠক হওয়া প্রয়োজন। পরদিন বৃহস্পতিবার সাবেক মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন এক সাক্ষাৎকারে বলেন, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে জনগণকে চমকে দিতেই কিমের সঙ্গে বৈঠক করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন ট্রাম্প।

ট্যাগ: bdnewshour24