banglanewspaper

বাংলাদেশ করোনা ভাইরাস টেস্টে জালিয়াতি ও সেখানে যাওয়া যাত্রীর শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়ায় বাংলাদেশের সঙ্গে আগামী ৬ অক্টোবর পর্যন্ত দেশটির সকল  ফ্লাইট বাতিল করে ইতালি।  

এর আগে বাংলাদেশ থেকে যাওয়া ফ্লাইটে যাত্রীদের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি থাকায় আগামী এক সপ্তাহের জন্য সকল ফ্লাইট বাতিল করেছিল দেশটির সরকার।  

স্থানীয় সময় বুধবার (৮ জুলাই) রাতে এ সংক্রান্ত নোটাম (নোটিস  টু এয়ারম্যান) জারি করেছে ইতালি। 

নোটামে বলা  হয়েছে, ‘ইতালিয়ান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে  বাংলাদেশে থেকে আসা সব যাত্রী ও  ফ্লাইট  ইতালিতে প্রবেশ করতে পারবে না। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ঝুঁকি বেড়ে যাওয়ায় কোনও এয়ারলাইন্স বাংলাদেশে থেকে কোনও যাত্রী আনতে পারবে না। এমনকি কোনও ট্রানজিট ফ্লাইটেও যাত্রী আনা যাবে না, যারা বাংলাদেশ থেকে এসেছেন। 

এই নোটাম  জারির পর কাতার এয়ারওয়েজ ঘোষণা দিয়েছে—  ৫ অক্টোবর পর্যন্ত বাংলাদেশ থেকে ইতালিগামী কোনও যাত্রী  তাদের ফ্লাইটে  নেওয়া হবে না।  

জানা গেছে,  ৬ জুলাই বাংলাদেশ থেকে রোমে যাওয়া একটি ফ্লাইটের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক যাত্রীর শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। এরপর বাংলাদেশের সঙ্গে সব ধরনের ফ্লাইট বাতিলের ঘোষণা দিয়েছে ইতালি। 

এছাড়াও বাংলাদেশের করোনা ভাইরাস টেস্টের জালিয়াতির খবর প্রকাশ হওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছে দেশটির সরকার। বাংলাদেশের এই জালিয়াতির খবর ইতালির জাতীয় গণমাধ্যমেও উঠে এসেছে। 

বাংলাদেশ করোনা টেস্টের জালিয়াতির ইস্যু এখন ইতালির অন্যতম আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু। এর ফলে দেশটিতে থাকা বাংলাদেশি অভিবাসীদের বিষয়ে কঠোর অবস্থানে ইতালি সরকার। ৮ জুলাই বাংলাদেশ থেকে কাতার হয়ে ইতালিতে যাওয়া দুটি ফ্লাইটের ১৬৮ বাংলাদেশিকে ফিরিয়ে দিয়েছে ইতালি।  

করোনা পরিস্থিতির কারণে দুই মাস বন্ধ থাকার পর জুনে বাংলাদেশ থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পুনরায় চালু হয়। গত কয়েক সপ্তাহে ইতালির সঙ্গে বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি ফ্লাইট চলাচল হয়েছিল।  

ট্যাগ: bdnewshour24