banglanewspaper

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী, ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনের প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

শনিবার (১১ জুলাই) সকাল ১০টায় রাজধানীর তেজগাঁওয়ে তার বাসা সংলগ্ন বায়তুল শরফ জামে মসজিদে এই জানাজা সম্পন্ন হয়। 

বেলা ১১টায় বনানী কবরস্থানে জামে মসজিদে দেশের এই নারী রাজনীতিকের দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। জানাজা শেষে বনানী কবরস্থালে মায়ের কবরে তাকে দাফন করা হবে।

এর আগে গতকাল শুক্রবার রাত ২টার দিকে বিশেষ বিমানে থাইল্যান্ড থেকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয় সাহারা খাতুনের মরদেহ। বিমানবন্দর থেকে মরদেহ সরাসরি নেয়া হয় ফার্মগেট সংলগ্ন তেজগাঁওয়ে তার নিজ বাসায়। 

গত ২ জুন জ্বর, অল্যার্জিসহ বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে অসুস্থ অবস্থায় সাহারা খাতুনকে রাজধানীর গুলশানে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ১৯ জুন সকালে তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়। পরবর্তীতে অবস্থার উন্নতি হলে তাকে আইসিইউ থেকে এইচডিইউতে স্থানান্তর করা হয়।

গত ৬ জুলাই বেলা সোয়া ১১টা পর্যন্ত তিনি ওই হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন। ওইদিনই তাকে থাইল্যান্ডে নেয়া হয় এবং হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) রাতে থাইল্যান্ডের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ৭৭ বছর বয়সী সাহারা খাতুন।

তৃতীয় মেয়াদে জাতীয় সংসদে ঢাকা-১৮ আসনের প্রতিনিধিত্ব করছিলেন আওয়ামী লীগের এই সভাপতিমন্ডলীর সদস্য। ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার ক্ষমতায় এলে সাহারা খাতুনকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী করা হয়। পরে তাকে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া হয়। তিনিই ছিলেন দেশের প্রথম কোনও নারী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

ট্যাগ: bdnewshour24