banglanewspaper

বিশ্বজুড়ে নারীদের স্বাস্থ্য ও অধিকার রক্ষায় গুরুত্ব দিয়ে গতকাল ১১ জুলাই পালিত হয়েছে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস। প্রজনন স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে এবং বিশ্বজুড়ে টেকসই উন্নয়ন অর্জনের জন্য জাতিসংঘ কর্তৃক মনোনীত এক দিন। চলতি বছরের প্রতিপাদ্যে বিশ্বজুড়ে নারী ও মেয়েদের স্বাস্থ্য ও অধিকার রক্ষায় আলোকপাত করা হয়েছে। বিশেষত চলমান কোভিড-১৯ মহামারির মধ্যে নারী স্বাস্থ্য ও অধিকারের প্রতি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক গণমাধ্যম আল–জাজিরা জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে গত ৭০ বছরে জনসংখ্যা বৃদ্ধির একটি চিত্র তুলে ধরেছে। তাতে দেখা যায়, যেখানে ১৯৫০ সালে বিশ্বের জনসংখ্যা ছিল আড়াই শ’ কোটি। সেখানে মাত্র ৭০ বছরে জনসংখ্যা এখন ৭৭০ কোটি।

১৯৫০ সালেও চীন বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দেশ ছিল। তখন দেশটির জনসংখ্যা ছিল ৫৫ কোটি ৪৪ লাখ। এর পরেই ছিল ভারত, যেটি এখন দ্বিতীয় স্থানেই রয়েছে। এর জনসংখ্যা ছিল ৩৭ কোটি ৬৩ লাখ। 

এ ছাড়া ওই সময়ের জনবহুল তালিকায় প্রথম ১০ দেশের মধ্যে ছিল যুক্তরাষ্ট্র (১৫ কোটি), রাশিয়া (১০ কোটি), জাপান (৮ কোটি), জার্মানি (প্রায় ৭ কোটি), ইন্দোনেশিয়া (৬ কোটি ৯৫ লাখ), ব্রাজিল (৫ কোটি), যুক্তরাজ্য (৫ কোটি), ইতালি (৪ কোটি ৬৬ লাখ)। 

বাংলাদেশকে ১৯৬১ সালে প্রথম ১০টি দেশের মধ্যে দেখা যায়। তখন এর জনসংখ্যা ছিল ৫ কোটি। ১৯৭৯ সালে বাংলাদেশ বিশ্বের জনসংখ্যার দিক দিয়ে অষ্টম অবস্থানে চলে আসে।

২০২০ সালে এসেও বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দেশের শীর্ষে বহাল রয়েছে চীন। এর জনসংখ্যা ৭০ বছরে ৮৮ কোটি বেড়ে হয়েছে ১৪৩ কোটি। ভারতের জনসংখ্যা বেড়েছে ১০০ কোটি। এখন দেশটির জনসংখ্যা ১৩৭ কোটি। বাংলাদেশের জনসংখ্যা ১১ কোটি বেড়ে এখন ১৬ কোটি।

যখন থেকে বিশ্ব ১০০ কোটিতে: ১৮০৪ সালে বিশ্বের জনসংখ্যা ১০০ কোটির মাইলফলকে পোছায়। এরপর ২০০ কোটিতে পৌঁছাতে সময় নেয় ১২৩ বছর। অর্থাৎ ১৯২৭ সালে ২০০ কোটি জনসংখ্যা হয় বিশ্বের। পরের ১০০ কোটি মাত্র ৩৩ বছরে অর্থাৎ ১৯৬০ সালে ৩০০ কোটিতে পৌঁছে যায় বিশ্বের জনসংখ্যা। পরবর্তী ধাপ মাত্র ১৪ বছরে (১৯৭৪ সালে) ছাড়ায় ৪০০ কোটি। 

এরপর আরও দ্রুত বাড়তে থাকে জনসংখ্যা, ১৯৮৭ সালে মাত্র ১৩ বছরে পৌঁছে যায় ৫০০ কোটিতে। ১২ বছরের (১৯৯৯ সালে) মধ্যে ৬০০ কোটিতে। আর সাত শ’ কোটির মাইল ফলকে পৌঁছায় ২০১১ সালে। অর্থাৎ ১২ বছরের মধ্যে। আর এখন পৃথিবী জনসংখ্যা ৭৭০ কোটি। এই ৭০ কোটি বেড়েছে মাত্র ৯ বছরে। 
জাতিসংঘের পূর্বাভাস অনুযায়ী ২০২৪ সালে ৮০০ কোটিতে পৌঁছে যাবে বিশ্বের জনসংখ্যা।

জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার: বর্তমানে বিশ্বে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার সবচেয়ে বেশি বাহরাইনের। এ ছাড়া দ্রুত বর্ধনশীল জনসংখ্যার দেশের তালিকায় আছে নাইজার, গায়ানা, ওমান, উগান্ডা, মালদ্বীপ, অ্যাঙ্গোলা, কঙ্গো, বুরুন্ডি ও চাদ।

যে দেশগুলোতে কমছে জনসংখ্যা: গত পাঁচ বছরে জনসংখ্যা হ্রাস পেয়েছে যে দেশগুলোতে— পাঁচ বছর ধরে লিথুনিয়ায় জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার মাইনাস ১.৪৮ শতাংশ। লাটভিয়ায় মাইনাস ১ দশমিক ১৫ শতাংশ, ভেনিজুয়েলায় মাইনাস ১ দশমিক ১৩ শতাংশ, বসনিয়া এবং হার্জেগোভিনায় মাইনাস শূন্য দশমিক ৮৯ শতাংশ এবং বুলগেরিয়া মাইনাস শূন্য দশমিক ৭১ শতাংশ।

ট্যাগ: bdnewshour24