banglanewspaper

তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অবস্থিত ঐতিহাসিক ‘আয়া সোফিয়াকে’ মসজিদে রূপান্তর করার সিদ্ধান্তে ‘খুবই কষ্ট’ পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন পোপ ফ্রান্সিস। রোমান ক্যাথলিকদের সর্বোচ্চ এই ধর্মীয় নেতা ভ্যাটিকানে এক সার্ভিসে  বলেন, তিনি কষ্ট পেলেও ইস্তাম্বুলের প্রতি সহমর্মিতা জানাচ্ছেন। বিশ্বে বেশ কয়েকজন ধর্মীয় ও রাজনৈতিক নেতার পাশাপাশি পোপও তুরস্কের এ সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন।

রবিবার ভ্যাটিকানের সেন্ট পিটারস স্কয়ারের সাপ্তাহিক সভায় জাদুঘরের মর্যাদা বাতিল হওয়ার বিষয়ে খুব বেশি কিছু বলেননি পোপ ফ্রান্সিস। তিনি বলেন, “আমি ইস্তাম্বুল নিয়ে চিন্তা করছি, আমি ইস্তাম্বুলের প্রতি সহমর্মিতা জানাচ্ছি। যখন সান্তা সোফিয়া নিয়ে চিন্তা করছি, তখন খুবই কষ্ট পাচ্ছি।”

শুক্রবার (১০ জুলাই) তুরস্কের শীর্ষ প্রশাসনিক আদালত আয়া সোফিয়ার জাদুঘর মর্যাদা নাকচ করেছে। প্রশাসনিক আদালতের রায়ে জাদুঘরটি আবারও মসজিদ হল। রায়ে আদালত বলেছেন, “পর্যালোচনার পর সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়া গেছে যে, এই স্থাপনা মসজিদ হিসেবেই বরাদ্দ ছিল। এর বাইরে অন্য কিছু হিসেবে এটিকে ব্যবহার করা আইনগতভাবে সম্ভব নয়।”

আদালত রায়ে আরও বলেন, “১৯৩৪ সালে মসজিদ হিসেবে এর ব্যবহার বন্ধ করে জাদুঘর হিসেবে ব্যবহারের যে সিদ্ধান্ত মন্ত্রিসভা নিয়েছিল, তা আইনসঙ্গত নয়।”

ট্যাগ: bdnewshour24