banglanewspaper

গতকাল এক অনলাইন বৈঠকের পর চলতি বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ক্রিকেট সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। একইসঙ্গে জানিয়েছে নতুন সূচিও। পিছিয়ে যাওয়া আসরটি হবে ২০২১ সালের অক্টোবর-নভেম্বরে। সবকিছু স্বাভাবিক থাকলে আয়োজক হবে অস্ট্রেলিয়াই।

বিশ্বকাপ পিছিয়ে যাওয়ায় সঙ্গত কারণেই প্রশ্ন উঠেছে, যারা বিশ্বকাপের অগ্রিম টিকিট কিনেছেন, তাদের কী হবে? টিকিটের মেয়াদও বাড়ানো হবে? নাকি ফেরত দেয়া হবে টাকা? নাকি রাখা হয়েছে ভিন্ন কোন ব্যবস্থা? এসব প্রশ্নের উত্তরও দিয়েছে আইসিসি।

সংস্থাটির ওয়েবসাইটে প্রশ্নোত্তর সেকশনে জানিয়ে দেয়া হয়েছে, যেসব দর্শক ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের টিকিট কিনে ফেলেছেন, তাদের সবাইকেই টিকিটের পুরো অর্থ ফেরত দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে। তবে সেটি হবে দুইটি শর্তে। প্রথমত বিশ্বকাপ যদি অস্ট্রেলিয়ায় না হয় এবং ২০২১ সালের আসরও যদি পিছিয়ে যায়।

অর্থাৎ ২০২১ সালের আসরটি যদি অস্ট্রেলিয়ার মাটিতেই হয়, তাহলে এখন কিনে রাখা টিকিটগুলো দিয়েই দর্শকরা খেলা দেখতে পারবেন। এর বাইরে অন্য কোন পরিস্থিতির উদয় হলে টিকিটের পুরো অর্থ ফেরত দেয়া হবে। সেক্ষেত্রে ১৫ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখ থেকে টাকা ফেরত নেয়ার আবেদন করা যাবে এবং ত্রিশ দিনের মধ্যেই ফেরত পাওয়া যাবে টাকা।

আইসিসির পক্ষ থেকে লেখা হয়েছে, ‘যারা টিকিট কিনেছেন, তারা নিজেদের টিকিট সংগ্রহে রাখতে পারেন। কারণ অস্ট্রেলিয়াতে ২০২১ সালের আসরটি হলে এ টিকিটেই খেলা দেখতে পারবেন। তবে যদি অস্ট্রেলিয়া এটি ২০২২ সালে আয়োজন করে, তাহলে টিকিটের পুরো টাকাই ফেরত পাবেন আপনারা।’

ট্যাগ: bdnewshour24