banglanewspaper

ভয়াবহ বিস্ফোরণে লেবাননের রাজধানী বৈরু এখন ধ্বংসস্তুূপ। ধ্বংসস্তুূপ দাঁড়িয়ে হাজার হাজার লেবানিজরা এখন বিক্ষোভ করছে। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। পুলিশ টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করেছে।

দুই ধরে চলা বিক্ষোভ শনিবার (৮ আগস্ট) ব্যাপক আকারে রূপ নেয়। দেশটির প্রায় পাঁচ হাজার সরকার বিরোধী শনিবার রাস্তায় নেমে আসে। 

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, তারা সংসদ ভবনে প্রবেশের চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। বিক্ষোভকারীরা সরকারের পদত্যাগ দাবি করে স্লোগান দেয়। তারা পুলিশের দিকে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। 

ঝুঁকি জেনেও অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের মত মারাত্মক দাহ্য পদার্থ কেন ‍বছরের পর বছর ফেলে রাখা হয়েছিল তার জবাব চেয়ে লেবাননের সরকারবিরোধী বিক্ষোভ করেছে হাজারো মানুষ।

২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট মজুদ থেকেই গত মঙ্গলবার বিকেলে ঘটে ভয়াবহ বিস্ফোরণ। বিস্ফোরণের ধাক্কায় পুরো বৈরুত শহর ভূমিকম্পের মত কেঁপে ওঠে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরো পাঁচ হাজারের বেশি মানুষ। রাজধানী বৈরুতের অর্ধেকই ধুলিসাৎ হয়েছে গেছে। এখনো নিখোঁজ বহু মানুষ। তাই হতাহতের সংখ্যাও বাড়বে। তিন লাখের বেশি মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছেন।

রাজধানীর কেন্দ্রস্থলে বন্দরের গোডাউনে বছরের পর বছর বিপজ্জনক অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট মজুদ থাকার ঘটনাকে অনেক লেবানিজ মনে করেন, এ জন্য রাজনৈতিক সিস্টেম দায়ী।

এমনকি প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন শুক্রবার রাজনৈতিক ব্যবস্থাকে ‘প্রতিবন্ধী’ হিসেবে স্বীকার করে বলেছেন, এই রাজনৈতিক ব্যবস্থা পুনর্বিবেচনা করা দরকার। তিনি এ ঘটনার ‘দ্রুত বিচারের’ অঙ্গীকার করলেও আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি প্রত্যাখান করেন।

ট্যাগ: bdnewshour24