banglanewspaper

বৈরুত বন্দরে রাসায়নিকের গুদাম থেকৈ গত ৪ আগস্ট ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় বিপর্যস্ত লেবানন। উত্তাল গণবিক্ষোভের মুখে এমপি-মন্ত্রীদের পদত্যাগের এক পর্যায়ে সরকারের পতন ঘটে। বিক্ষোভের মুখে প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব পদত্যাগ করলেও পরবর্তী সরকার গঠিত না হওয়া পর্যন্ত তাকে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট মাইকেল আউন।

এরইমধ্যে বুধবার (১২ আগস্ট) প্রেসিডেন্ট মাইকেল আউন জানিয়েছেন, ওই বিস্ফোরণে লেবাননের ক্ষতির পরিমাণ অর্থের মানদণ্ডে ১৫ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়েছে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ এক লাখ ২৬ হাজার কোটি টাকারও বেশি।
 
লেবানিজ প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, ওই বিস্ফোরণের ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটিগুলো প্রাথমিক তদন্ত শেষে আর্থিক ক্ষতির এ পরিমাণ নিরূপণ করেছে।

৪ আগস্টের ওই বিস্ফোরণে কার্যত গোটা বৈরুত শহর কেঁপে ওঠে। চারদিকে বাড়িঘর ধসে পড়তে শুরু করে। বৈরুত শহরের প্রায় অর্ধেকই এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত অন্তত ১৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত ছয় হাজার। গৃহহীন হয়ে পড়েছে তিন লাখ মানুষ। এছাড়া বন্দরের পাশে অবস্থিত লেবাননের প্রধান খাদ্য গুদাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

এই পরিস্থিতিতে ফের সরকারবিরোধী আন্দোলনে নামে সাধারণ মানুষ। মুখে লেবাননের পতাকা রঙের মাস্ক পরে তারা দিকে দিকে সরকারবিরোধী স্লোগান দিতে থাকে। এছাড়া পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর নিক্ষেপ এবং বিভিন্ন সরকারি অফিসে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স জানিয়েছে, অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের সম্ভাব্য ওই বিস্ফোরণ নিয়ে গত জুলাই মাসে লেবাননের প্রধানমন্ত্রী এবং প্রেসিডেন্টকে সতর্ক করা হয়েছিল। সরকারকে সতর্ক করার দুই সপ্তাহের মধ্যে লেবানের রাজধানী বৈরুতের বন্দরে ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের বিস্ফোরণ ঘটে।

গত ২০ জুলাই লেবাননের রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা বিষয়ক অধিদফতর থেকে প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন এবং প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াবের একটি চিঠি পাঠানো হয়। ওই চিঠিতে কী ছিল সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত করে কিছু জানা যায়নি। 

তবে একজন জ্যেষ্ঠ নিরাপত্তা কর্মকর্তা দাবি করেছেন, জানুয়ারিতে শুরু হওয়া একটি বিচার বিভাগীয় তদন্তের ফলাফলের সারসংক্ষেপ ছিল ওই চিঠিতে। যেখানে অবিলম্বে রাসায়নিকগুলোকে সুরক্ষিত করার তাগিদ দেওয়া হয়েছিল।

ওই কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, এই রাসায়নিকগুলো চুরি করে সেগুলো দিয়ে যে কেউ সন্ত্রাসী হামলা চালাতে পারতো। এ নিয়ে তদন্তের পর একটি চূড়ান্ত প্রতিবেদন সরকারের কাছে পাঠানো হয়েছিল। বলা হয়েছিল যে, যদি এটি বিস্ফোরিত হয় তাহলে এটি বৈরুতকে ধ্বংস করে দেবে।

যদিও সদ্য পদত্যাগের ঘোষণা দেওয়া লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব আগাম সতর্কতার বিষয়ে এখনও কোনও মন্তব্য করেননি।

ট্যাগ: bdnewshour24