banglanewspaper

টানা তিন দিন জিজ্ঞাসাবাদের পর গেল ৮ সেপ্টেম্বর বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্ধবী অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে মাদককাণ্ডে গ্রেফতার করেছে ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি)। বর্তমানে এ অভিনেত্রী মুম্বাইয়ের বাইকুল্লা কারাগারে আছেন। 

রিয়াকে গ্রেফতারের পরপরই মাদককাণ্ডে বলিউডের আরও বেশ কয়েকজনের নাম সামনে আসে। এবার সেই তালিকায় জড়ালো পাতৌদি নবাব সাইফ আলি খানের কন্যা বলিউডের উঠতি নায়িকা সারা আলি খানের নাম। 

এনসিবি-এর জিজ্ঞাসাবাদে রিয়া চক্রবর্তী জানিয়েছেন, তিনি যে মাদককারবারীর কাছ থেকে মাদক সংগ্রহ করতেন তার সঙ্গে সারা আলি খানেরও যোগাযোগ রয়েছে। এমনকি সারার কাছ থেকেও সরাসরি মাদক সংগ্রহ করতেন রিয়া। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জিনিউজের খবরে বলা হয়েছে, এনসিবি’র জিজ্ঞাসাবাদে রিয়া আরও দাবি করেন, সারা নিয়মিত মাদক সেবন করেন। মাদক কারবারীদের সঙ্গেও সারার যোগাযোগ রয়েছে। রিয়ার এমন বক্তব্যের পরই সারা আলি খানের বিষয়ে নড়েচড়ে বসেছে এনসিবি।

জানা যায়, সারার পরিচিত মাদক কারবারীদের কাছ থেকে মাদক সংগ্রহ করে সুশান্তের জন্য নিয়ে যেতেন রিয়া। এ ব্যাপারে সারাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে। 

যদিও সারার বিরুদ্ধে রিয়ার এমন অভিযোগের পর এখনও পাতৌদি পরিবারের পক্ষ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।

গেল ১৪ জুন মুম্বাইয়ের বান্দ্রার বাড়ি থেকে সুশান্ত সিং রাজপুতের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। শুরুতে মুম্বাই পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে। পরে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তা কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা (সিবিআই) এর হাতে উঠে তদন্তভার। 

সুশান্তের মৃত্যুর ঘটনায় করা মামলায় রিয়ার বাড়ি থেকে ল্যাপটপসহ বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস উদ্ধার করা হয়। একপর্যায়ে রিয়ার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাপ থেকে তার মাদক সেবনের বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। এরপর রিয়ার মাদককাণ্ড নিয়ে এনসিবি পৃথক তদন্ত শুরু করে। 

ট্যাগ: bdnewshour24