banglanewspaper

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় কক্সবাজারের টেকনাফ থানার বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাসের বিরুদ্ধে জামিন আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন আদালত। 

রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপর ১২টার দিকে শুনানি শেষে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমান এ আদেশ দেন। 

ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে ‘ঘুষ ও দুর্নীতির’ মাধ্যমে প্রায় ৪ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে এ মামলা করে দুদক। 

দুদকের আইনজীবী মাহমুদুল হক সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, প্রদীপের জামিন আবেদন আদালত নামঞ্জুর করেছেন। সেইসঙ্গে চিকিৎসা ও কারাগারে সাক্ষাতের বিষয়ে প্রদীপের আইনজীবীর করা আবেদনে কারাবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জেল সুপারকে নির্দেশ দিয়েছেন। 

এর আগে গেল ১৪ সেপ্টেম্বর দুদকের করা মামলায় শুনানি শেষে প্রদীপকে গ্রেফতার দেখান আদালত। ওইদিনই তার জামিনের আবেদন করা হলে আদালত ২০ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য রেখেছিলেন। 

গেল ৩১ জুলাই টেকনাফের বাহারছড়া তল্লাশিচৌকিতে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। 

এই ঘটনায় নিহতের বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস বাদী হয়ে কক্সবাজারের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রদীপসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। 

এরপর অসুস্থতার কথা বলে থানা থেকে ছুটি নিয়ে চলে আসেন প্রদীপ। চট্টগ্রামে আত্মগোপনে থাকেন। সেখান থেকে ৬ আগস্ট কক্সবাজার আদালতে গিয়ে আত্মসমপর্ণ করেন। 

এরপর থেকেই কারাগারে আছেন ওসি প্রদীপ কুমার দাস। 

দুদক সূত্র জানায়, ওই মামলায় প্রদীপের স্ত্রী চুমকী কারণও আসামি। প্রদীপ কারাগারে যাওয়ার পর থেকে চুমকী পলাতক আছেন। 

ট্যাগ: bdnewshour24