banglanewspaper

ইউক্রেনের বিমান বাহিনীর একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে প্রশিক্ষণার্থীসহ ২২ জন নিহত হয়েছেন। মারাত্মক আহত অবস্থায় দু’জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। ২৮ জন যাত্রী বহনকারী বিমানের বাকি যাত্রীদের উদ্ধার করতে দুর্ঘটনাস্থলে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন উদ্ধারকর্মীরা।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলেছে, শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ইউক্রেনের পশ্চিমের শহর খারকিভের কাছে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। আন্তোনোভ-২৬ ট্রান্সপোর্ট বিমানটি থেকে ধোয়ার কুণ্ডুলী বের হতে দেখা গেছে।

ইউক্রেনের রাষ্ট্রীয় জরুরি সেবা কেন্দ্র থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, দেশটির একটি সামরিক বিমানবন্দরের দুই কিলোমিটার দূরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনাস্থল থেকে ২২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। দু’জনকে উদ্ধার করা হয়েছে আহত অবস্থায়। বাকিদের সন্ধান পেতে কাজ করে যাচ্ছেন উদ্ধারকর্মীরা। প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।

নিখোঁজ আরও তিনজনের খোঁজ চলছে জানান জরুরি সেবা কর্মকর্তারা। আহতদের অবস্থা গুরুতর বলে ফেসবুকে নিশ্চিত করেছেন আঞ্চলিক গভর্নর ওলেকসি কুশার।

বিমান বাহিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, মৃতদের বেশিরভাগই শিক্ষার্থী। তারা খারকিভ ন্যাশনাল এয়ার ফোর্স ইউনিভার্সিটির।

জানা গেছে, রাজধানী কিয়েভের আড়াইশ মাইল পূর্বে অবস্থিত চুহুইভ বিমানবন্দরে অবতরণের কথা ছিল বিমানটির। তবে অবতরণের আগেই সেটি বিধ্বস্ত হয়ে যায়। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও জানিয়েছে, সামরিক বাহিনীর ওই বিমানে বিমান বাহিনীর পাইলট ও শিক্ষানবিশ ক্যাডেটরা ছিলেন।

প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কি এই ঘটনাকে ‘ভয়াবহ ট্র্যাজেডি’ উল্লেখ করে বলেছেন, সব ধরনের পরিস্থিতি ও এই ট্র্যাজেডির কারণ তদন্তে আমরা জরুরি ভিত্তিতে একটি কমিশন গঠন করতে যাচ্ছি।

ট্যাগ: bdnewshour24