banglanewspaper

১০০ মিটারে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ক্রিস্টিয়ান কোলম্যান নিষিদ্ধ হয়েছেন দুই বছরের জন্য। ড্রাগ টেস্টে ধরা পড়ায় এ শাস্তি পেতে হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের এ অ্যাথলেট। চলতি বছরের ১৪ মে থেকে তার নিষেধাজ্ঞার সময় ধরা হয়েছে। নিষেধাজ্ঞার কারণে আগামী বছর টোকিও অলিম্পিকে তিনি খেলতে পারবেন না। 

৬০ মিটার ইনডোর রেসে বিশ্বরেকর্ডধারী কোলম্যান শাস্তি কমানোর জন্য বিশ্ব ক্রীড়ার সর্বোচ্চ আদালত কোর্ট অব আর্বিট্রেশনে ৩০ দিনের মধ্যে আপিল করতে পারবেন।

কোন অ্যাথলেট এক বছরের মধ্যে পর পর তিনটি পরীক্ষায় অনুপস্থিত থাকলে তাকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়। ২০১৯ সালের ১৬ জানুয়ারি প্রথমবার অনুপস্থিত থাকার পর ২৬ এপ্রিল দ্বিতীয় ও ৯ ডিসেম্বর তৃতীয় দফা পরীক্ষায়ও উপস্থিত হননি কোলম্যান। এ ধরনের আইন ভঙ্গের পেছনে একটি বিষয় নিশ্চিত হয়েছে যে কোলম্যান নিষিদ্ধ দ্রব্য গ্রহণ করেছেন।

২০১৯ সালে দোহায় অনুষ্ঠিত বিশ্বচ্যাম্পিয়নপিপে পুরুষদের ১০০ মিটারে কোলম্যান স্বর্ণ জয় করেছিলেন। সেখানে তিনি ৪০০ মিটার রিলেতেও যুক্তরাষ্ট্র দলের হয়ে স্বর্ণ জয় করেছেন। 

দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ হওয়ার খবর শুনে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে কোলম্যান বলেছেন, তিনি এ ব্যাপারে একেবারেই দায়ী নন। আর এটি প্রমাণের জন্য ক্যারিয়ারের বাকিটা সময় প্রতিদিনই তিনি ড্রাগ টেস্টে অবতীর্ণ হতে রাজি আছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24