banglanewspaper

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর ভালো নেই সত্যজিৎ রায়ের অপুর সংসার ছবির নায়ক সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। বর্তমানে জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে আছেন জনপ্রিয় এ অভিনেতা। তার প্রথম পর্যায়ের ডায়ালাইসিস করা হয়েছে। তবে চিকিৎসকরা চিন্তিত আছেন তার রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা নিয়ে। 

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এদিন একই রকম সংকটে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তবে স্নায়বিক অবস্থার খুব সামান্য উন্নতির কারণে বৃহস্পতিবার ডাকাডাকির পর চোখ মেলে কয়েকবার তাকিয়েছেন। ডায়ালাইসিসের পর রক্তে জমে যাওয়া দূষিত পদার্থের মাত্রা কিছুটা কমেছে। বিকেলে আবারও ডায়ালাইসিস করা হবে।   
এরআগে রেনাল ফাংশানের উন্নতির জন্য ডায়ালাইসিস করার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। প্রথম দফায় ২-৩টি অ্যাপিসোডের ডায়ালাইসিস করা হবে বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থেকে জানানো হয়। কোনো সাপোর্ট ছাড়াই বর্তমানে তার রক্তচাপ ১৪৫/৯০। তবে এখনো অনেকটাই আচ্ছন্নভাব রয়েছে সৌমিত্রের।

রবিবার (২৫ অক্টোবর) রাতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সৌমিত্রের শরীরে সোডিয়াম, পটাশিয়ামের তারতম্য ঘটেছে। রক্তে হিমোগ্লোবিনের পরিমাণও কমে গেছে। প্লেটলেটের সংখ্যাও অত্যন্ত কম। বেড়ে গেছে ইউরিয়ার পরিমাণ। বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সচল থাকলেও বর্ষীয়ান এই অভিনেতার শারীরিক জটিলতা ও কো মর্বিডিটি চিকিৎসার পথে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে।

দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে বেলভিউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সৌমিত্র। করোনা আক্রান্ত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত সপ্তাহে তার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। সেই সঙ্গে চিকিৎসাতেও সাড়া দিতে থাকেন তিনি। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থা আবারও সঙ্কটজনক হয়ে পড়েছে।

সমস্যা বাড়িয়েছে মস্তিষ্কে সংক্রমণ অভিঘাত (কোভিড এনসেফ্যালোপ্যাথি) এবং স্নায়বিক অবস্থা। তার ফলে তিনি বেশিরভাগ সময়ে তন্দ্রাচ্ছন্ন অবস্থায় রয়েছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

প্রসঙ্গত, ১৯৩৫ সালের ১৯ জানুয়ারি নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগরে জন্মগ্রহণ করেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের আমহার্স্ট স্ট্রিট সিটি কলেজে সাহিত্য নিয়ে পড়াশোনা করেন।

১৯৫৯ সালে তিনি প্রথম সত্যজিৎ রায়ের পরিচালনায় অপুর সংসার ছবিতে অভিনয় করেন। সত্যজিতের ৩৪টি সিনেমার ভেতর ১৪টিতে অভিনয় করেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

ট্যাগ: bdnewshour24