banglanewspaper

ইরানের পরমাণু স্থাপনা পর্যবেক্ষণে জাতিসংঘ পরিদর্শকদের প্রবেশাধিকার বাতিলের দাবি উঠেছে। দেশটির সব এমপির স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে রবিবার এ অনুমতি বাতিলের দাবি জানানো হয়েছে। ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদে হত্যাকাণ্ডের প্রতিক্রিয়ায় এমন আহ্বান জানালেন তারা। 

ইরানের এমপিদের স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, দেশের শীর্ষস্থানীয় বিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদেহ হত্যাকাণ্ডে খুনি ইসরায়েলের হাত স্পষ্ট। সরকারের কিছু সদস্য মনে করেন, পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনা ইরানকে একটি ‌‘স্বাভাবিক রাষ্ট্রে পরিণত করবে। তাদের এমন ক্ষতিকর চিন্তাভাবনা ইসরায়েলকে এ ধরনের পদক্ষেপ নিতে উৎসাহিত করেছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে যুক্তরাষ্ট্র, ইসরায়েল ও তাদের অন্যান্য মিত্রদের কাছ থেকে সন্ত্রাস ও নাশকতার যে অভিজ্ঞতা ইরানের হয়েছে দুর্ভাগ্যক্রমে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তার কোনও প্রতিক্রিয়া দেখানো হয়নি। এসব ঘটনা দেখিয়ে দিয়েছে, পশ্চিমাদের কাছে কথিত স্বাভাবিক হওয়ার চিন্তাভাবনা কতটা ভুল ও বিপজ্জনক, যোগ করে এমপিরা।

তেহরানের রাস্তায় এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিশোধের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা বিক্ষোভ করেছে। একজন বিক্ষোভকারী সেখানে বলেছেন, আমেরিকান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার ক্ষমতার শেষ দুই মাসে একটা যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি করতে চাইছেন। 

তবে ইরানের বাস্তববাদী প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির কথাগুলো ছিল অবশ্য অনেক মেপে মেপে, হিসাব করে বলা। তিনি বলছেন, প্রতিশোধ নেওয়া হবে ঠিকই। কিন্তু হয়তো এক্ষুণি তা হবে না। ইরান যথাসময়ে ব্যবস্থা নেবে, ফাঁদে পা দেবে না। তারা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়। কিন্তু আমরা তাদের হাতে কি তাস আছে তা বুঝে ফেলেছি। তারা সফল হবে না। 

ট্যাগ: bdnewshour24