banglanewspaper

দেশেই একদিন পরিবহন ও যুদ্ধবিমান তৈরি হবে বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘শুধু যুদ্ধবিমান নয়, একদিন আমরা মহাকাশেও পৌঁছে যেতে পারি। সেই প্রচেষ্টাও আমাদের থাকবে।’

রবিবার (২০ ডিসেম্বর) সকালে যশোরের বিমানবাহিনী একাডেমিতে রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে দেয়া বক্তৃতায় তিনি এমন কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সম্প্রতি লালমনিরহাটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এভিয়েশন অ্যান্ড এয়ার স্পেশ বিশ্ববিদ্যালয় চালু করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে বিমান চলাচল, নির্মাণ, গবেষণা, মহাকাশ ও বিজ্ঞানচর্চা হবে। যার মাধ্যমে একদিন আমরা এই বাংলাদেশে যুদ্ধবিমান, পরিবহন বিমান ও হেলিকপ্টার তৈরি করতে পারবো।’

এসময় তিনি দেশপ্রেম, সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে বিমানবাহিনীর সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান। 

সরকারপ্রধান বলেন, ‘যারা নবীন কর্মকর্তা হচ্ছে যাচ্ছেন, অর্থাৎ প্রশিক্ষণ শেষ করে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন, তাদের সেই দায়িত্ববোধ ও দেশপ্রেম থাকতে হবে। আর সেই সঙ্গে থাকতে হবে আত্মবিশ্বাস।’

তিনি বলেন, ‘করোনা ভাইরাসের কারণে এখন আমরা হয়তো ততটা অর্থ ব্যয় করতে পারছি না। তবে আমাদের পরিকল্পনা আছে বিমানবাহিনীকে আরও যুযোপযোগী করে গড়ে তোলার।’

বঙ্গবন্ধুর প্রতিরক্ষা নীতি তৈরির কথা উল্লেখ করে করোনা মহামারি আর ঝড়-বন্যা-জলোচ্ছ্বাসে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর সাহসী ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী। 

তিনি বলেন, ‘আগামীর সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনেও এ বাহিনীর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। কোনও দিক দিয়েই বাংলাদেশ যাতে পিছিয়ে না থাকে সেই লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। এজন্য দায়িত্ববোধ ও দেশপ্রেম থাকতে হবে। জাতির পিতার নির্দেশ মেনে চলতে পারলে সততার সাথে দেশকে অনেক দূর এগিয়ে নিতে পারবো।’

সরকারপ্রধান বলেন, ‘আমরা দেশকে এগিয়ে নিতে কাজ করছি। আমরা জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছি। যদিও আমাদের যে আকাঙ্ক্ষা ছিল, জন্মশতবার্ষিকী আমরা ব্যাপকভাবে করবো। করোনার কারণে সেভাবে পারিনি। ভার্চুয়ালি এবং ডিজিটাল পদ্ধতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যতটুকু করার ততটুকু করেছি।’

তিনি বলেন, ‘২০২১ সালে আমরা স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করবো। জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী আর স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী আমরা একইভাবে উদযাপন করবো।’

রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীতে ৬৭ জন অফিসার ক্যাডেট কমিশন পেলেন। এর মধ্যে ২০ জন নারী অফিসার। বাফা কোর্সে কৃতিত্বের জন্য ৪ অফিসার ক্যাডেটকে দেয়া হয় সোর্ড অব অনার, বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান ট্রফি, কমান্ড্যান্টস ট্রফি এবং চিফ অব এয়ার স্টাফ পদক।

ট্যাগ: bdnewshour24