banglanewspaper

অনেকে সকালে ঘুম থেকে উঠে আগে কিছু খেয়ে নেন। কেউ চা বা কপি, আবার কেউ স্ন্যাক। আবার কারও ক্ষেত্রে তালিকাটা আরো বেশি বড় হয়ে থাকে। যদিও সকালের নাশতা সুস্বাস্থ্যের জন্য উপকারী তবুও কিছু খাবার হতে পারে ওজন বৃদ্ধির কারণ। তাই আপনার খাবারের তালিকা থেকে দূরে রাখতে হবে পাঁচটি খাবার। না হলে শরীরের বিভিন্ন সমস্যা হতে পারে।

চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সেই খাবারগুলো সম্পর্কে-
 
৥ জ্যাম ও জেলি: দিনের প্রথমভাগেই যদি বেশি ক্যালরি গ্রহণ করা হয় তবে ওজন কমানোর চেষ্টা বৃথা যেতে পারে। আর ফল থেকে তৈরি এই খাবারে রয়েছে প্রচুর চিনি। আর চিনি মানেই ক্যালরি। তাই ওজন কমানোর খাদ্যাভ্যাসে জ্যাম কিংবা জেলি থাকা উচিত নয়। তাই সকালের নাশতায় জ্যাম ও জেলি পরিহার করুন। 

৥ স্টাফড ফ্রেঞ্চ টোস্ট: দুধ-ডিমে ভেজানো ভাজা পাউরুটি ওজন বাড়িয়ে দিতে পারে। এতে সাধারণত ২২৯ ক্যালরি থাকে। সুঠাম দেহ পাওয়ার লক্ষ্য থেকে আপনাকে দুটি কারণে দূরে সরাবে খাবারটি।

৥ টমেটো: এই সবজিটিতে উচ্চমাত্রায় টনিক অ্যাসিড থাকে। এটি পেটে অ্যাসিডিটি বাড়িয়ে দিতে পারে। পরবর্তী সময়ে এ কারণে গ্যাস্ট্রিক থেকে আলসার পর্যন্তও গড়াতে পারে।
 
৥ মশলাজাতীয় খাবার ও কোমল পানীয়: বেশি মশলাজাতীয় খাবার পেটে জ্বালাপোড়া তৈরি করতে পারে। এ ছাড়া খাবার হজমেও বাধা সৃষ্টি করে। এছাড়া সকাল বেলার খালি পেটে কোমল পানীয় খাবার হজম হতে বেশি সময় নেয়। ফলে এসব খাবার সকালে খাওয়ার থেকে বিরত থাকা উচিত।
 
৥ আলুর চপ: সকালে অনেকেই খিচুড়ির সঙ্গে ঘরে তৈরি গরম গরম আলুর চপ পছন্দ করেন। তবে এতে প্রায় ৩২৯ ক্যালরি রয়েছে, যা পুরো একবেলার খাবারের চেয়েও বেশি। ফলে শরির ফিট রাখতে হলে আপনাকে আলুর চপের লোভ সামলাতে হবে। 

৥ শসা ও সবুজ শাকসবজি: কাঁচা শাকসবজিতে অ্যামিনো অ্যাসিডের মাত্রা বেশি থাকে। বুক জ্বালা, পেট ফাঁপা, পেটে ব্যথার ঘটনাগুলো হতে পারে খালি পেটে শসা বা সবুজ শাকসবজি খেলে। 

ট্যাগ: bdnewshour24