banglanewspaper

বাংলা চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান শনিবার সকালে নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। শতাধিক চলচ্চিত্রের বহু খল ও কমেডি চরিত্রকে অমর করে যাওয়া এ অভিনেতার মৃত্যুতে সংস্কৃতি অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

কিন্তু কিংবদন্তি এই অভিনেতার মরদেহ নেওয়া হয়নি তার দীর্ঘদিনের কর্মস্থল এফডিসি কিংবা শহীদ মিনারে। এটিএম শামসুজ্জামানকে শেষবার দেখার জন্য তার দীর্ঘদিনের কর্মস্থল বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (বিএফডিসি) অপেক্ষায় ছিলেন শতশত সহকর্মী। কিন্তু এখানে আনা হয়নি তার মরদেহ। কী ছিল তার কারণ? 

এ বিষয়ে এটিএম শামসুজ্জামানের মেয়ে কোয়েল আহমেদ। তিনি বলেন, ‘জীবদ্দশায় আব্বা নিজেই নিষেধ করে গেছেন তার মৃত্যুর পর মরদেহ কোথাও না নিতে। বলেছেন তার দাফন কাজ যেন দ্রুত শেষ করা হয়। শহীদ মিনার বা এফডিসিতে নিতেও নিষেধ করেছেন। তাই তাকে এই দুই জায়গার কোথাও নেওয়া হয়নি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আব্বা নিজে ঠিক করে গেছেন, কে তার জানাজা পড়াবেন, কোথায় তাকে দাফন করা হবে। আমরা তার আদেশ অনুযায়ী সব করছি।’

রাজধানীর নারিন্দায় পীর সাহেবের বাড়িতে এটিএম শামসুজ্জামানের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় জানাজা শেষে জুরাইন কবরস্থানে ছেলের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন এ অভিনেতা।

ট্যাগ: bdnewshour24