banglanewspaper

ব্যবসায়ী পাত্র নিখিল জৈনকে বিয়ে করে দাম্পত্য জীবন বেশ ভালোই কাটছিল টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের এমপি নুসরাত জাহানের। কিন্তু হঠাৎই উঠলো ঝড়। সেই ঝড়ে ছিন্নভিন্ন হওয়ার পথে নিখিল-নুসরাতের ঘর। 

টলিগঞ্জের শোবিজপাড়ায় এখন জোর আলোচনা, গোপনে টলিউড অভিনেতা যশ দাশগুপ্তকে সময় দিচ্ছেন নুসরাত। তাদেরকে একসঙ্গেও বহুবার ঘনিষ্ঠভাবে দেখা গেছে। কানাঘুষা চলছে, ঘরে স্বামী রেখে যশের সঙ্গে পরকীয়ার জের ধরেই নিখিল ও নুসরাতের সংসার ভাঙতে বসেছে।

এবার সংসার ভাঙার সেই গুঞ্জন সত্যি করে নুসরাতের কাছে বিবাহবিচ্ছেদ চেয়েছেন নিখিল। ওপার বাংলার জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার এমন খবর প্রকাশ করেছে। যদিও নিখিল এখন এ নিয়ে গণমাধ্যমের সামনে মুখ খোলেননি। 

আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিখিলের বিচ্ছেদের আবেদনের দিনও তার ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করেছেন নুসরাত। মনে করা হচ্ছে, বিচ্ছেদের পর নুসরাত মোটা অংকের খোরপোষ দাবি করবেন। কারণ, তার অতীত সম্পর্কেও এমনই ইতিহাস জানা যায়। বিয়ে না করলেও বিচ্ছেদের সময় প্রেমিকের সঙ্গে বড় অংকের টাকার আদান-প্রদান হয়েছিল। 

গেল জানুয়ারিতে যশকে নিয়ে হাত ধরাধরি করে মন্দিরে গিয়ে বিতর্কের আগুনে ঘি ঢেলেছিলেন অভিনেত্রী নুসরাত। তখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করা একটি ভিডিওতে নুসরাতকে খোলা চুলে গোলাপি কাঞ্জিভরম শাড়িতে দেখা যায়। হাতে শাখা ও পলা, সিঁথিতে সিঁদুর। মাথায় টুপি, মুখে মাস্ক আর টি শার্ট ও জিন্স ট্রাউজার্স পড়া নুসরাতের পাশেই দাঁড়িয়ে যশ। এরপর নিখিলেন সঙ্গে সংসারে চিড় ধরার গুঞ্জন আরও জোরালো হয়। 

‘SOS কলকাতা’ ছবির শুটিংয়ের সঙ্গে যশের সঙ্গে নুসরাতের বন্ধুত্ব হয়। এরপর থেকে তাদের মাখামাখিটা সবার নজরে আসে। স্বামী নিখিলেরও চোখ এড়ায়নি বিষয়টি। 

গেল থার্টি ফাস্ট নাইটে রাজস্থানে যশের সঙ্গে সময় কাটিয়েছেন নুসরাত। স্ত্রীকে ছাড়াই কলকাতায় একা একা থার্টি ফাস্ট নাইট উদযাপন করেছেন নিখিল। এরপর থেকেই যশের সঙ্গে নুসরাতের পরকীয়া সম্পর্কের গুঞ্জন আরও গাঢ় হয়।

২০১৯ সালের ১৯ জুন নিখিল জৈনের সঙ্গে মালাবদল হয় নুসরাতের। 

ট্যাগ: bdnewshour24