banglanewspaper

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, ধর্মের নামে বিএনপি জামায়াত, হেফাজত, সারাদেশে জ্বালাও পোড়াও ভাঙচুর করে সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালাচ্ছে। এদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড কঠোরভাবে দমন করার জন্য সরকারের পাশাপাশি নেতাকর্মীদের এগিয়ে আসতে হবে।

বুধবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে হেফাজতে ইসলামের তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত স্থাপনা ও বাড়িঘর পরিদর্শন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

হানিফ বলেন, আঘাত এসেছে প্রতিঘাত করা হবে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না, ধর্মের নামে হেফাজত অধর্মের কাজ করছে, রিসোটে নারী নিয়ে ধরা পড়েছে হেফাজতের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মামুনুল হক।

ধর্মের নামে হেফাজত অধর্মের কাজ করছেন মামুনুল হক। তাকে রিসোট থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে হেফাজতের নেতাকর্মীরা যে ভাবে আওয়ামী লীগ অফিস, আওয়ামী লীগ যুবলীগ নেতাকর্মীদের বাড়িঘর ভাঙচুর করেছে আমি আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এর তীব্র নিন্দা জানাই। 

হানিফ ক্ষতিগ্রস্থ নেতাকর্মীদের মামলা করার নির্দেশ দিয়ে বলেন, হেফাজত বিএনপি জামায়াতের যেসব সন্ত্রাসীরা এসব ভাঙচুর জ্বালাও পোড়াও করেছে তাদের সুনিদিষ্ট নাম ঠিকানা সংগ্রহ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, পরিবারের পরিচয় নিশ্চিত হয়ে আসামি করার পর্রামশ দেন।

তিনি বলেন, যেসব ধর্ম ব্যবসায়ীরা ধর্মের নামে দেশে অরাজকতা পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে তাদের প্রত্যেককে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। এসব ধর্ম ব্যবসায়ীদের হাত থেকে ধর্মকে রক্ষা করতে হবে।

আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলে ছিলেন দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাসিম, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ূয়া, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃনাল কান্তি দাস, সংসদ সদস্য শামীম ওসমান, সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুসহ স্থানীয় নেতারা।

ট্যাগ: bdnewshour24