banglanewspaper

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে আপত্তি মন্তব্য করায় কদিন আগেই টুইটার থেকে বিতাড়িত হয়েছেন বলিউডের বিতর্কিত অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। তার অ্যাকাউন্টটি স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া তার নামে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে মামলাও করা হয়েছে। টুইটার হারানোর পর ইনস্টাগ্রামে সরব হন কঙ্গনা। কিন্তু এবার বোধহয় এ মাধ্যম থেকেও বিতাড়িত হবেন তিনি।

সম্প্রতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কঙ্গনা। এই খবর নিজেই ইনস্টাগ্রামে জানান। তবে করোনাকে তিনি সাধারণ ফ্লু হিসেবে উল্লেখ করেন। শুধু তাই নয়, করোনা নিয়ে সংবাদমাধ্যমগুলো বেশি বাড়াবাড়ি করছে বলেও মন্তব্য করেন। বলেন, ‘সংবাদমাধ্যমগুলো করোনা নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি করছে বলেই মানুষের মাঝে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। এটা সাধারণ জ্বর,সর্দি ছাড়া কিছু নয়। এই ভাইরাসকে আমি ধ্বংস করব।’


বরাবরের মতো কঙ্গনার এই মন্তব্যও গণহারে বয়কট করেছেন নেটবাসী। অভিনেত্রীর ওই পোস্টের নিচে এক কথায় তাকে ধুয়ে দিয়েছেন। অনেকে হুমকিমূলক বার্তাও লিখেছেন। করোনাভাইরাসকে কঙ্গনার সাধারণ ফ্লু বলে উল্লেখ করা এবং তার জেরে নেটবাসীর কাছ থেকে হুমকি পাওয়া- এই দুই কারণে কঙ্গনার ওই পোস্টটি ডিলিট করে দিয়েছে ইনস্টাগ্রাম কর্তৃপক্ষ। ফের আবার কোনো ধরনের বিতর্কিত পোস্ট দিলে তাকে ইনস্টাগ্রাম থেকেও বিতাড়িত করা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

ইনস্টাগ্রাম যে কঙ্গনার পোস্ট ডিলিট করে দিয়েছে, সেটাও অন্য একটি পোস্টে জানিয়েছেন ‘কুইন’ খ্যাত অভিনেত্রী। যথারীতি সেখানেও করেছেন বিতর্কিত মন্তব্য। তিনি লিখেছেন, ‘ইনস্টাগ্রাম আমার পোস্ট ডিলিট করে দিয়েছে। কারণ আমি করোনাভাইরাসকে ধ্বংস করতে চেয়েছি। এতে অনেকেই কষ্ট পেয়েছেন। দুই দিন হলো ইনস্টাগ্রামে এসেছি, মনে হয় না এক সপ্তাহের বেশি থাকতে পারব।’

ট্যাগ: bdnewshour24