banglanewspaper

করোনা পরিস্থিতির আর অবনতি না ঘটলে আগামী ১৩ জুন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে চায় সরকার। সেজন্য শিক্ষাকার্যক্রম পরিচালনায় প্রয়োজনীয় প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ থেকে এ নির্দেশনা জারি করা হয়।

নির্দেশনায় বলা হয়, করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকাসাপেক্ষে আগামী ১৩ জুন থেকে এ বিভাগের আওতাধীন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা এবং শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার প্রয়োজনীয় প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অনুরোধ করা হলো।

একইসঙ্গে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার লক্ষ্যে আগের বন্ধের ধারাবাহিকতায় আগামী ১২ জুন পর্যন্ত এ বিভাগের আওতাধীন সবধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে বলে চিঠিতে বলা হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, এই সময়ে নিজেদের ও অন্যদের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে সুরক্ষার লক্ষ্যে শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ বাসস্থানে স্থান করবেন এবং টেলিভিশন ও অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের সঙ্গে সংযুক্ত থাকবেন। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বন্ধকালীন শিক্ষার্থীদের বাসস্থানে অবস্থানের বিষয়টি অভিভাবকরা নিশ্চিত করবেন এবং স্থানীয় প্রশাসন তা নিবিড়ভাবে পরিবীক্ষণ করবেন।

গত বছর মার্চে দেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পরপর সবধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। কয়েক মাস পর কওমি মাদ্রাসা খুলে দিলেও অন্য সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। গত মার্চে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার তারিখ ঘোষণা করলেও করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়ে যাওয়ায় সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে সরকার।

দফায় দফায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানোর পর গতকাল বুধবার ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি ১২ জুন পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানোর ঘোষণার পাশাপাশি জানান, করোনা পরিস্থিতি খুব বেশি খারাপ না হলে আগামী ১৩ জুন থেকে স্কুল-কলেজ খোলা হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24