banglanewspaper

করোনাভাইরাসের টিকা দিতে গিয়ে ভারতে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে বয়সী নারীর সন্ধান মিলেছে। রেহতী বেগম নামের শতবর্ষী ওই নারীর বাস জম্মু-কাশ্মীরের বরমুলায়। রেশন কার্ড অনুযায়ী এখন তার বয়স ১২৪ বছর। রেহতী বেগমকে ভ্রাম্যমাণ একটি টিকাদান ইউনিট বুধবার টিকা দিয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, টিকা দিতে গিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীরা রেহতী বেগমের খোঁজ পান। তার নামে থাকা রেশন কার্ডের জন্ম তারিখ হিসেবে রেহতীর বয়স এখন ১২৪ বছর। যদিও বর্তমানে জাপানের কানি তানাকা বিশ্বের সবচেয়ে বয়সী নারী হিসেবে চিহ্নিত। গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের হিসাবে তার বয়স ১১৮ বছর। বয়সের ব্যবধান হিসাব করলে জাপানের কানি তানাকার চেয়ে রেহতী বেগম ৬ বছরের বড়।


এর আগে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি বয়সী নারীর রেকর্ড ছিল ফ্রান্সের জ্যাঁন কালমেন্টের। ১৯৯৭ সালে ১২২ বছর বয়সে মৃত্যু হয় ফরাসী ওই নারীর। তার চেয়েও দুই বছরের বড় কাশ্মীরের রেহতী বেগম। তবে কাম্মীরের এই নারীর বয়স এখনও গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস থেকে স্বীকৃত নয়।

ট্যাগ: bdnewshour24