banglanewspaper

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) ম্যাচে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে মোহামেডানের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে তিন ম্যাচ বহিষ্কার ও পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ওই দিনের ম্যাচ রেফারির করা এই শাস্তি মেনে নিয়েছেন জাতীয় দলের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

আজ শনিবার দুপুরের পর ম্যাচ রেফারি মোরশেদুল আলমের পাঠানো শাস্তির নোটিশ হাতে পান সাকিব। তিনি তখন গুলশানের ওয়েস্টিন হোটেলে অবস্থান করছিলেন। সাকিবের বিরুদ্ধে লেভেল-৩ পর্যায়ের আচরণবিধি ভাঙার অভিযোগ আনা হয়েছে। তিনি এই শাস্তি মেনে চিঠিতে স্বাক্ষর করে দেন।


সাকিব শাস্তি মেনে নেওয়ায় এ নিয়ে আর কোনো শুনানি হবে না বলে জানা গেছে। লেভেল ৩ পর‌্যারে শাস্তি হলো- প্রথমবার করলে ১ থেকে ২ ম্যাচ বহিষ্কার ও কমপক্ষে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা। একই ম্যাচে এই অপরাধ দ্বিতীয়বার করলে তার শাস্তি ২ থেকে ৫ ম্যাচের বহিষ্কার ও জরিমানা কমপক্ষে ২৫ হাজার টাকা। দুই অপরাধের জন্যই ন্যূনতম ম্যাচে বহিষ্কার করা হয় সাকিবকে। প্রথম অপরাধের জন্য ১ ম্যাচ ও দ্বিতীয় অপরাধের জন্য ২ ম্যাচ। তবে জরিমানা করা হয়েছে সর্বোচ্চ।

এদিকে সাকিবের শাস্তি ঘোষণা নিয়ে সন্ধ্যায় যে সংবাদ সম্মেলন ডেকেছিলেন বিসিবির সিসিডিএম প্রধান কাজী ইনাম আহমেদ, সেটি বাতিল করা হয়। এর আগে মোহামেডান ক্লাবের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে গণমাধ্যমে খবর প্রচার হয়েছিল যে সাকিব চার ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন। এই সংবাদের পর সিসিডিএম থেকে সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়েছিল।

গতকাল ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের খেলায় মোহামেডানের বিপক্ষে জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করছিল আবাহনী। তখন ৩ উইকেটে তাদের সংগ্রহ ২১ রান। পঞ্চম ওভারে বল হাতে তুলে নেন সাকিব আল হাসান। ওভারের পঞ্চম বলটি আঘাত হানে আবাহনী অধিনায়ক মুশফিকুর রহীমের প্যাডে। সাকিব এলবিডব্লিউর আবেদন করেন, আম্পায়ার সিদ্ধান্ত দেন নট আউট। অসন্তুষ্ট সাকিব ক্ষোভে লাথি মেরে উইকেট ভেঙে দেন।

একই ম্যাচে আর একটি ওভারে শেষ বলের আগে বৃষ্টির সম্ভাবনায় আম্পায়ার খেলা বন্ধ করে দিলে আবার চটে যান সাকিব। বলটি হয়ে গেলে ডিএল নিয়মে জয় পেয়ে যেত সাকিবরা। কিন্তু আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ সাকিব দৌড়ে গিয়ে দুই হাতে স্ট্যাম্প উপড়ে আছড়ে ফেলেন।

এরপর ফিরছিলেন ড্রেসিং রুমে। সেখানে ঘটে আরেক কাণ্ড, গ্যালারি থেকে আবাহনীর দর্শকেরা সাকিবকে উদ্দেশ করে কিছু একটা বলছিলেন। সেটার পাল্টা জবাবও দেন তিনি। এতে রেগে যান আবাহনী কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন। এবার তাকেও ছাড় দেননি মোহামেডান অধিনায়ক। তার সঙ্গে বিতণ্ডায় জড়ান তিনি। পরে অবশ্য মাফ চেয়ে নেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।

আবাহনীর বিরুদ্ধে গতকালের ম্যাচটি পরে সাকিবের মোহামেডানই জেতে। নীল-হলুদ জার্সির বিপক্ষে দীর্ঘদিন পর একটি জয় পেল সাদা-কালো।

ট্যাগ: bdnewshour24