banglanewspaper

মাত্রই তো শুরু হলো ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের খেলা। দীর্ঘদিন পর আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফিরে কত স্বপ্নই না দেখেছিলেন ডেনিস তারকা ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেন। কিন্তু তার কপাল পুড়ল নিজেদের প্রথম ম্যাচেই। ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে হঠাৎ হার্ট অ্যাটাকে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। পরে অবশ্য জ্ঞান ফিরেছে, হয়েছেন সুস্থও। কিন্তু তার মাঠে ফেরা নিয়ে দেখা দিয়েছে সংশয়। আবারো নতুন উদ্যমে মাঠে ফিরবেন তো এরিকসেন?

গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে ডেনমার্কের হয়ে মাঠে নেমেছেন দলীয় মিডফিল্ডার ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেন। সুস্থ টগবগে এই যুবক মাঠে ছিলেন প্রাণবন্ত। ৪৩তম মিনিটে একটা থ্রো ইন রিসিভ করতে টাচলাইনের কাছে চলে যান এরিকসেন। বল রিসিভের আগেই জ্ঞান হারিয়ে মাঠে লুটিয়ে পড়েন তিনি।


ঘটনার আকস্মিকতায় বিহ্বল সবাই ছুটে যান তার কাছে। তখন থেকেই বন্ধ ছিল খেলা। শেষমেশ স্থগিতই ঘোষণা করে দেওয়া হয় খেলাটিকে। হঠাৎ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এমনটা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সঙ্গে সঙ্গেই তাঁকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। আর হাসপাতালে নেওয়ার পথেই জ্ঞান ফেরে তার। এরিকসেনের সঙ্গে থাকা এক ডাক্তার ক্যামেরার দিকে ‘থাম্বস আপ’দেখিয়েছেন বলেও জানাচ্ছে ইউরোপের কিছু সংবাদমাধ্যম। আর এখন মোটামুটি সুস্থ রয়েছেন বলে জানা যায়।

কিন্তু সুস্থ থাকলেও আর মাঠে ফেরা হবে কিনা সেটা নিয়ে সংশয়ের দেখা দিয়েছে। এদিকে ক্রীড়া বিষয়ক হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ প্রফেসর সঞ্জয় শর্মার মনে করেন, আপাতত সুস্থ হলেও, আর কখনও হয়তো মাঠে ফিরতে পারবেন না এরিকসেন। তিনি আদৌ হার্ট অ্যাটাক করেছেন কি না সে বিষয়েও যথেষ্ঠ সংশয় রয়েছে বলেও জানা তিনি।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল স্কাই নিউজকে সঞ্জয় বলেন, ‘এটা পরিষ্কার যে, কোথাও একটা ভয়াবহ অসঙ্গতি হয়েছে। এটা ভালো বিষয় যে তারা (মেডিকেল টিম) এরিকসেনের জ্ঞান ফেরাতে পেরেছে। কিন্তু প্রশ্ন হলো, কী হয়েছে? কেনই বা হয়েছে? তার তো ২০১৯ সাল পর্যন্ত সব রিপোর্ট ঠিক ছিল। এটাকে হার্ট অ্যাটাক কীভাবে বলতে পারেন?’

তবে আর যাই হোক এরিকসেন বেঁচে রয়েছেন এটাই ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে বড় পাওয়া। আর সব বাঁধা-বিপত্তি অতিক্রম করে আবারো ফুটবল মাঠে ফিরবেন তিনি- এমনটাই আশা করছেন ফুটবলপ্রেমী জনগণ।

ট্যাগ: bdnewshour24