banglanewspaper

ধর্ষণের হুমকির শিকার অভিনেত্রী প্রত‍্যুষা পাল। শুধু তাই নয়, তার মাকেও নাকি ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হয়েছে। থানায় অভিযোগ দায়েরের পরেও হুমকি অব্যাহত। এমনই অভিযোগ জনপ্রিয় এ টেলি-নায়িকার।

অভিনেত্রী জানান, গত বছরের শুরু থেকেই ধর্ষণের হুমকি দিচ্ছে এক ব্যক্তি। এক বছর ধরে লালবাজারের সাইবার সেল দপ্তর থেকে বার বার ফিরে আসতে হয়েছে তাকে। রোববার (১১ জুলাই) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারকে তিনি জানিয়েছেন, অবশেষে এবার তারা অভিযোগ নিয়েছেন। তবে এখনো কোনো তদন্ত শুরু হয়নি।

অভিনেত্রী জানান, অভিযোগ জমা পড়ার পর একাধিক সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশ পাওয়ার পরেও সেই ব্যক্তি রোববার সকালে নাকি তাকে ধর্ষণের বর্ণনা দিয়ে মেসেজ করেছে ইনস্টাগ্রামে। ক্ষোভ, হতাশা প্রকাশ পেল প্রত্যুষার গলায়।

প্রত্যুষা জানান, নির্দিষ্ট একটি ব্যক্তিই তাকে মেসেজ করছেন নানা প্রোফাইল থেকে। একটা প্রোফাইল ব্লক করে দিলে অন্য প্রোফাইল খুলে তাকে প্রশ্ন করছে, ‘কী রে প্রোফাইল ব্লক করে দিলি কেন?’ প্রত্যুষা বুঝতে পারেন, বার বার ওই একই ব্যক্তি তাকে মেসেজ করছেন। চার-পাঁচ বার এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হতেই তিনি স্থানীয় সিঁথি থানার দ্বারস্থ হন। সেখান থেকে জানানো হয়, লালবাজার সাইবার সেলে গিয়ে অভিযোগ দায়ের করতে হবে।

থানা কর্মকর্তাদের কাছ থেকে পদ্ধতি জেনে নিয়ে নিজের মাকে লালবাজারে পাঠান। প্রত্যুষা বলেন, ‘তারা মাকে ভাল করে বুঝিয়ে দেন যে, এমন ঘটনা খুব স্বাভাবিক। সমাজে পরিচিত মুখ হলে, খ্যাতি পেলে এ সব হবেই। মাথা না ঘামানোর উপদেশ দেওয়া হয় মাকে। তার পরেও মাস যায়, সেই ব্যক্তির মেসেজ থামে না। চলতেই থাকে। এমনকি আমার মাকেও ধর্ষণ করবে বলে হুমকি দেয় সে। আবারও মাকে পাঠাই লালবাজারে। একই ঘটনা ঘটে সেখানে। গত এক বছর ধরে ঝড়, বৃষ্টি, করোনা- সব কিছুর মধ্যে বার বার পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছি। কোনো সুরাহা হয়নি।’

তিনি বলেন, আতঙ্কে থেকেছি। রাস্তায় বের হতে ভয় পেতাম। মনে হত, যদি সত্যিই ধর্ষণ করে দেয় সেই ব্যক্তি! আর কোনো উপায় না পেয়ে সংবাদমাধ্যমের সাহায্য নিই। তাতেই কাজ হয়। পুলিশ অভিযোগ গ্রহণ করে।

প্রত্যুষা আরও বলেন, ‘ওই ব্যক্তি এমন এমন সূক্ষ্ম তথ্য আমায় দিয়েছে, অবাক হয়ে গেছি। তাই মনে হয়, সেই ব্যক্তি হয়তো আমাকে খুব ভাল করে চেনে, আমিও চিনি। অথবা সে আমার সমস্ত খবরাখবর রাখে, কিন্তু আমি তাকে চিনি না।’

টেলিপাড়ার জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রত‍্যুষা। মাত্র ১৬ বছর বয়সে অভিনয়ে পা রাখেন তিনি। জি বাংলায় ‘এসো মা লক্ষ্মী’ সিরিয়ালে মুখ‍্য চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি। তার অভিনয় এখনও দর্শকদের মনে গেঁথে রয়েছে। তারপর আর তাকে পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। একে একে তবু মনে রেখো, গুড়িয়া যেখানে গুড্ডু সেখানে’র মতো সিরিয়ালে কাজ করেছেন প্রত‍্যুষা। 

ট্যাগ: bdnewshour24