banglanewspaper

অতিভারি বর্ষণে একাধিক নদীর পানি বেড়ে সৃষ্ট বন্যায় জার্মানি ও বেলজিয়ামে অন্তত ৭০ জনের প্রাণহানি হয়েছে এবং অনেকে এখনও নিখোঁজ রয়েছেন। নিহতদের বেশিরভাগই জার্মানির বাসিন্দা এবং বেলজিয়ামে নিহত হয়েছে অন্তত ১১ জন। 

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, জার্মানির রাইনল্যান্ড-পালাটিনেট ও নর্থ রাইন-ওয়েস্টফেলিয়া প্রদেশ বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। নেদারল্যান্ডসও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এসব অঞ্চলে শুক্রবার ভারি বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। 

এমন অতিবৃষ্টির পেছনে জলবায়ু পরিবর্তনকেই দায়ী করছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা।

নর্থ রাইন-ওয়েস্টফেলিয়া প্রদেশের প্রিমিয়ার বা প্রাদেশিক সরকারপ্রধান আরমিন ল্যাশেট বন্যা উপদ্রুত এলাকা পরিদর্শন করেছেন। তিনি বৈশ্বিক উষ্ণতাকে চরম প্রতিকূল আবহাওয়ার জন্য দায়ী করেছেন।

আরমিন ল্যাশেট বলেছেন, ‘এমন প্রতিকূল পরিস্থিতিতে আমাদের বারবার পড়তে হবে। এ কারণে আমাদের জলবায়ু সংরক্ষণ ব্যবস্থাপনা ত্বরান্বিত করতে হবে। মনে রাখতে হবে, জলবায়ু পরিবর্তন কোনও একটি রাষ্ট্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নয়।’

বিশেষজ্ঞরাও জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে চরম প্রতিকূল আবহাওয়াজনিত দুর্বিপাকের আধিক্য হওয়ার আশঙ্কা করছেন। 

ট্যাগ: bdnewshour24