banglanewspaper

অতিভারি বর্ষণে একাধিক নদীর পানি বেড়ে সৃষ্ট বন্যায় জার্মানি ও বেলজিয়ামে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৭০ জনে দাঁড়িয়েছে। অনেকে এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, বন্যায় জার্মানিতে ১৪৩ জন ও বেলজিয়ামে ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। 

রবিবার (১৮ জুলাই) জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল জার্মানির রাইনল্যান্ড-পালাটিনেট ও নর্থ রাইন-ওয়েস্টফেলিয়া প্রদেশ পরিদর্শনে যাবেন। বন্যায় এ রাজ্যটি সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

রয়টার্স বলছে, গেল অর্ধশত বছরের মধ্যে এটিই জার্মানিতে সবচেয়ে বড় প্রাকৃতিক বিপর্যয়। দেশটির শুধুমাত্র কোলন শহরের দক্ষিণে আরউইলার জেলাতেই বন্যায় ৯৮ জন মারা গেছে বলে পুলিশের হিসাব বলছে।

এদিকে বন্যায় নিহতদের প্রতি শোক প্রকাশ করে জার্মানির প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক-ওয়াল্টার স্টিনমিয়ার বলেছেন, ‘এই ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগে যারা প্রাণ হারিয়েছেন, তাদের পরিবারের সদস্যদের মতো আমরাও শোকাহত। তাদের এই মর্মান্তিক মৃত্যু আমাদের হৃদয়কে ব্যথিত করেছে।’

এর আগে নর্থ রাইন-ওয়েস্টফেলিয়া প্রদেশের প্রিমিয়ার বা প্রাদেশিক সরকারপ্রধান আরমিন ল্যাশেট বন্যা উপদ্রুত এলাকা পরিদর্শন করেছেন। তিনি বৈশ্বিক উষ্ণতাকে চরম প্রতিকূল আবহাওয়ার জন্য দায়ী করেছেন।

আরমিন ল্যাশেট বলেছেন, ‘এমন প্রতিকূল পরিস্থিতিতে আমাদের বারবার পড়তে হবে। এ কারণে আমাদের জলবায়ু সংরক্ষণ ব্যবস্থাপনা ত্বরান্বিত করতে হবে। মনে রাখতে হবে, জলবায়ু পরিবর্তন কোনও একটি রাষ্ট্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নয়।’

ট্যাগ: bdnewshour24