banglanewspaper

চিত্রনায়িকা একার হাতে হওয়া শারীরিক নির্যাতনের বর্ণনা দিলেন গৃহকর্মী হাজেরা বেগম (৩৫)। শনিবার রাত ১০টার দিকে তার সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করা হলে তিনি খুলে বলেন বিস্তারিত।

হাজেরার বয়ান অনুযায়ী, শনিবার দুপুর দুইটার দিকে রামপুরার পূর্ব উলন বন্ধু নিবাসে নিজের বাসায় তাকে সারাদিন কাজ করতে বলেন চিত্রনায়িকা একা। হাজেরা এর উত্তরে বলেন, ‘আমি তো অন্যের বাসায় কাজ করি। আমি একটু পরে এসে কাজ করে দিয়ে যাবো।’

এরপর রেগে গিয়ে হাজেরাকে বকাবকি করেন একা। বলেন, তোমাকে কাজ করে দিয়ে যেতে হবে। কথা না শুনলে বাসা থেকে বের করে দেন তাকে। পরে হাজেরা বলেন, ‘আমি আপনার কাছে যে ৫০০০ টাকা পাব, ওইটা দিয়ে দেন।’ টাকা চাওয়ায় একা ইট দিয়ে হাজেরার হাতে আঘাত করেন।

পরে তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন ৯৯৯-এ কল করে পুলিশে খবর দেন। এরপর হাতিরঝিল থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শরিফ ঘটনাস্থলে এসে হাজেরাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান এবং প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।

আহত গৃহকর্মী হাজেরা বেগমদের গ্রামের বাড়ি শেরপুর সদরের হরিণধরা গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের রফিক মিয়ার স্ত্রী। ঢাকায় তিনি রামপুরা টিভি সেন্টারের পেছনে থাকেন।

এদিকে গৃহকর্মী হাজেরাকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগে নায়িকা একাকে শনিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে তার বাসা থেকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় তার বাসা থেকে বিদেশি মদ ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

চিত্রনায়িকা একা বর্তমানে হাতিরঝিল থানায় রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে গৃহকর্মী নির্যাতন ও মাদক আইনে দুটি মামলা করা হবে বলে জানিয়েছেন হাতিরঝিল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মহিউদ্দিন।

ট্যাগ: bdnewshour24