banglanewspaper

ঢাকায় অস্ত্র বিক্রি করতে এসে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের এক নেতা। তার নাম জানিবুল ইসলাম জোসি। গ্রেপ্তার করা হয়েছে বাসির আলী নামে জোসির এক সহযোগীকেও।

সোমবার রাতে দুটি অস্ত্র ও গুলিসহ দুজন তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। অভিযানে তাদের কাছ থেকে দুটি পিস্তল, ৮ রাউন্ড গুলি ও দুটি ম্যাগাজিন উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার।

হাফিজ আক্তার বলেন, রাজধানীর সায়দাবাদ বাস টার্মিনাল এলাকা থেকে সোমবার রাতে দুটি অস্ত্র ও গুলিসহ দুজন অস্ত্র ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের মধ্যে জানিবুল ইসলাম জোসি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের ‘ফ্রন্টলাইনার’নেতা ছিলেন। তাদের বিরুদ্ধে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও শিবগঞ্জ থানায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক আইনে একাধিক মামলার তথ্য পাওয়া গেছে।

ডিবি প্রধান বলেন, ভারতের সীমান্ত এলাকা থেকে অবৈধ অস্ত্র সংগ্রহ করে বিক্রির জন্য রাজধানীতে নিয়ে আসে এই চক্র। তারা কয়েক বছর ধরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ থানা এলাকা থেকে অস্ত্র সংগ্রহ করে ঢাকায় নিয়ে আসে। এই অস্ত্র ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে যাত্রাবাড়ী থানা এলাকায় মামলা হয়েছে।

হাফিজ আক্তার আরও বলেন, গোয়েন্দা ওয়ারী বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মুহাম্মাদ আশরাফ হোসেনের দিক নির্দেশনায় অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মো. তরিকুর রহমানের তত্ত্বাবধানে ডেমরা জোনাল টিমের টিম লিডার অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. আজহারুল ইসলাম মুকুলের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

একই রাতে অন্য একটি অভিযানে যাত্রাবাড়ী থানাধীন কাজলা এলাকা থেকে অজ্ঞান ও মলম পার্টির পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন এ কে এম হাফিজ আক্তার।

ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার বলেন, চক্রটি অটোরিকশা চালক, মোটরসাইকেল চালক, প্রাইভেটকার চালক ও যাত্রীদের সু-কৌশলে মধুর সঙ্গে চেতনানাশক ট্যাবলেট মিশিয়ে বিস্কুট, কলা, চা, জুস ও ফাস্টফুড জাতীয় খাবারের মাধ্যমে খাইয়ে দামি গাড়ি ও মূল্যবান জিনিসপত্র হাতিয়ে নিত।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মো. মাসুদ মিয়া ওরফে মাসুদ রানা, মো. সুমন কারাল ওরফে সুমন ফকির, মো. শাহিন ওরফে শামিম গাজী, শাওন ও মো. সজল।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ৯০টি চেতনানাশক ট্যাবলেট, অজ্ঞান ও মলম পার্টির কাছে ব্যবহৃত মধুর কৌটা, দুটি মোটরসাইকেল ও একটি প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলার তথ্য পাওয়া গেছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান তিনি।

ট্যাগ: bdnewshour24