banglanewspaper

যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানা অঙ্গরাজ্যে আঘাত হেনেছে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় আইডা। সোমবার ঘণ্টায় ২৪০ কিলোমিটার গতিতে আঘাত হানা এই ঝড়ে লণ্ডভণ্ড রাজ্যের নিউ ওরলিন্স শহর। ঝড়ে গাছের নিচে চাপা পড়ে একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে প্রায় ১০ লাখ মানুষ। ৫০ মিলিয়নেরও বেশি মানুষ বন্যা কবলিত হয়ে পড়েছে। গাছপালা, রাস্তাঘাট, বসতবাড়ি সবই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিএনএন এর তথ্য অনুযায়ী, আইডা দুর্বল হয়ে গ্রীষ্মমণ্ডলীয় ঝড়ে রূপ নিয়েছে। তবে, এই ঝড়েরও ব্যাপক ক্ষতিসাধনের ক্ষমতা রয়েছে। খবরে বলা হচ্ছে, লুইজিয়ানার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ও মিসিসিপিতে প্রবল বাতাস বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।


আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় সোমবার ও মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় উপসাগরীয় উপকূল ও টেনেসি উপত্যকায় প্রবল বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে। অন্যান্য সংস্থার পাশাপাশি লুইজিয়ানা ন্যাশনাল গার্ডও উদ্ধার কাজ শুরু করেছে। সোমবার তারা বলেছে, ‘আইডা রাজ্যজুড়ে ধ্বংসলীলা চালিয়েছে। আমরা উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করেছি।’

উপকূলীয় রাজ্য আলাবামার জেফারসন কাউন্টির এমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট ডিরেক্টর যোসেফ ভ্যালিয়েন্তে বলেছেন, একটি ইলেক্ট্রিকাল টাওয়ার আইডার প্রভাবে ধসে পড়েছে।

যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়েছে, আইডার প্রভাবে মিসিসিপি নদীর স্রোত উল্টা বইতে শুরু করে। নদীর পানি ভবনের ছাদের উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

এর আগে ২০০৫ সালের ২৯ আগস্ট নিউ ওরলিন্সে আঘাত হেনেছিল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ক্যাটরিনা। সেই ঝড়ে মারা গিয়েছিল ১৮০০ মানুষ। এবারও ২৯ আগস্ট আঘাত হানল ঘূর্ণিঝড় ইডা। বলা হচ্ছে, নিউ ওরলিন্স শক্তিশালী ঝড় মোকাবেলা করতে কতটুকু সক্ষম এটি তার একটি পরীক্ষা।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যেতে সপ্তাহ খানেক সময় লাগবে। এছাড়া তিনি সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন।

ঘূর্ণিঝড় ইডা সৃষ্টি হয় মেক্সিকো উপসাগরে। সেখান থেকে শক্তিশালী হয়ে এগিয়ে যেতে থাকে লুইজিয়ানা অঙ্গরাজ্যের দিকে। এই হারিকেনটি চতুর্থ ক্যাটাগরির। সবচেয়ে ভয়াবহ হারিকেন হচ্ছে পঞ্চম ক্যাটাগরির। এই ধরনের ঘূর্ণিঝড় বসতবাড়ি, গাছপালা, বিদ্যুৎ ব্যবস্থার ব্যাপক ক্ষতি করতে সক্ষম।

ট্যাগ: bdnewshour24

আন্তর্জাতিক
`সেক্স` লেখা নম্বর প্লেট নিয়ে বিপাকে তরুণী

banglanewspaper

নম্বর প্লেটের লেখা নিয়ে বিপাকে পড়েছেন এক ভারতীয় তরুণী। তার নম্বর প্লেটের শেষ তিন ডিজিটে লেখা এসইএক্স (sex)। এটি নিয়ে প্রবল সমস্য়ায় পড়েছেন তিনি। তার জেরে এখন স্কুটিতে চড়াই দায় হয়ে দাঁড়িয়েছে!

দিল্লির এক কলেজ পড়ুয়া তরুণীর সঙ্গে এই ঘটনা ঘটেছে। সে দিল্লির এক মধ্যবিত্ত পরিবার সন্তান। অক্টোবরে তার জন্মদিনে বাবা উপহার দিয়েছিলেন বাহনটি। মেয়ে যাতে সহজে যাতাযাত করতে পারে।

তবে কে জানতে জীবনে তা এমন সমস্যা ডেকে আনবে! বাহনটির প্লেটের শেষ তিন ডিজিট এসইএক্স। ইংরেজি বর্ণমালায় লেখা এই তিন বর্ণ তাকে দিয়েছে বিড়ম্বনা।

স্কুটারের নম্বর প্লেট লাগানোর সময় তার ভাইয়ের সামান্য়তম ধারণা ছিল না যে এই তিনটি অক্ষর তার পরিবারের জন্য এত গোলমাল ডেকে আনতে পারে।

এসইএক্স নম্বর প্লেট দেখে অনেকেই ভুল ভাবতে শুর করেন। রাস্তায় বের হলেই কটাক্ষের মুখে পড়তে হয় তাদের। তাই তারা স্কুটারের নম্বর প্লেট বদলানোর পরিকল্পনা করেছেন।

ভারতের রোড ট্রান্সপোর্ট অথোরিটির সঙ্গে কথাও বলেছেন। তারা জানান, ১০ হাজার গাড়িকে এই সিরিজে নম্বর দেওয়া হয়েছে।

দিল্লির কমিশনার অব ট্রান্সপোর্ট কে কে দাহিয়া জানান, একবার কোনও গাড়ির নম্বর দিয়ে দেওয়ার পর তা বদলানোর কোনও রাস্তা এখনও কোথাও খোলা নেই। কারণ গোটা প্রক্রিয়া একটা প্য়াটার্ন মেনে চলে।

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
করোনায় আরও ৫২৬৬ জনের মৃত্যু

banglanewspaper

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর মিছিল অব্যাহত আছে। গত এক দিনে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে আরও পাঁচ হাজার ২৬৬ জন মারা গেছেন। আর নতুন করে এই ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন চার লাখ ৩১ হাজার ১৮৯ জন।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এই তথ্য জানা গেছে।

সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, করোনায় বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৫২ লাখ ২৩ হাজার ৯৮৪ জনে। আর মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৬ কোটি ২৩ লাখ ৩১ হাজার ৫৭৯ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬ হাজার ৭২৫ জন এবং মারা গেছেন ৩১৭ জন। দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে রয়েছে রাশিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক হাজার ২০৯ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩৩ হাজার ৮৬০ জন।

জার্মানিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪২ হাজার ৫৮২ জন এবং মারা গেছেন ২৪১ জন। যুক্তরাজ্যে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪২ হাজার ৫৮৩ জন এবং মারা গেছেন ৩৫ জন। ইউক্রেনে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচ হাজার ৮০৪ জন এবং মারা গেছেন ২৯৭ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২২৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী ভাইরাসটি।

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
পাঁচ জাতির সঙ্গে ইরানের পরমাণু সমঝোতা

banglanewspaper

পাঁচ জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে ইরানের পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের বহুল প্রতীক্ষিত আলোচনা শুরু হয়েছে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায়। খবর পার্স টুডে’র।

প্রথম দিন শেষে ইরানের প্রধান পরমাণু আলোচক আলী বাকেরি-কানি বলেছেন, প্রথমদিনের বৈঠকে পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা ও মতবিনিময় হয়েছে।

তিনি বলেন, সোমবারের বৈঠকে আমরা এ বিষয়টি তুলে ধরেছি যে, পরমাণু সমঝোতা নিয়ে সৃষ্ট চরম অচলাবস্থার জন্য সেই দেশটি দায়ী যে কিনা আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে একতরফাভাবে এটি থেকে বেরিয়ে গেছে এবং ইরানের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

আলী বাকেরি বলেন, প্রথমদিনের আলোচনা শেষে সবার আগে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয়টি মীমাংসা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে আজ (মঙ্গলবার) নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের উপায় নিয়ে বিশেষজ্ঞ পর্যায়ের আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে।

ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, চীন, রাশিয়া এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন বা ইইউ’র সঙ্গে ইরানের প্রথমদিনের বৈঠক প্রায় দু’ঘণ্টা স্থায়ী হয়। এ বৈঠকে ইইউ’র পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক উপপ্রধান এনরিক মুরা এবং ইরানের প্রধান পরমাণু আলোচক আলী বাকেরি যৌথভাবে সভাপতিত্ব করেন। রুশ প্রতিনিধি মিখাইল উলিয়ানভ প্রথমদিনের বৈঠককে ফলপ্রসূ বলে বর্ণনা করেছেন।

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
ওমিক্রন নিয়ে গবেষণা তথ্য পেলে বুস্টার ডোজ: সেরাম সিইও

banglanewspaper

বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ছড়ানো করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনকে ঠেকাতে নতুন একটি ভ্যাকসিন আনা সম্ভব বলে জানিয়েছেন ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়ার (এসআইআই) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আদর পুনাওয়ালা। তিনি বলেছেন, ওমিক্রনের টিকার পরীক্ষা চলছে। বিজ্ঞানীদের গবেষণার ফলের ওপর ভিত্তি করে প্রয়োজন হলে নতুন ভ্যাকসিন আনা যেতে পারে। এ ভ্যাকসিনটি ছয় মাসের জন্য বুস্টার ডোজ হিসেবে কাজ করবে।

মঙ্গলবার ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে দেওয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন আদর পুনাওয়ালা।

সাক্ষাৎকারে বিশ্বের বৃহত্তম ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সেরামের সিইও বলেন, গবেষণায় যদি এ ধরনের শটের প্রয়োজনীয়তার ইঙ্গিত পাওয়া যায়, তাহলে কোভিড-১৯ ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের জন্য কোভিশিল্ড টিকার একটি সংস্করণ তৈরির বিষয়টি বিবেচনা করা যেতে পারে। ওমিক্রনের টিকার পরীক্ষা চলছে এবং আরও দুই সপ্তাহ পরে নতুন ভাইরাস সম্পর্কে জানা যাবে। অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীরা তাদের গবেষণা অব্যাহত রেখেছেন এবং তাদের গবেষণার ফলের ওপর ভিত্তি করে আমরা নতুন একটি ভ্যাকসিন আনতে পারি; যা ছয় মাসের জন্য বুস্টার হিসেবে কাজ করতে পারে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গবেষণার ওপর ভিত্তি করে সবার জন্য তৃতীয় এবং চতুর্থ ডোজ সম্পর্কে জানা যাবে বলে জানিয়েছেন আদর পুনাওয়ালা। তবে ওমিক্রনের জন্য ভ্যাকসিনের একটি নির্দিষ্ট সংস্করণের প্রয়োজন হবে না বলে মনে করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ওমিক্রনের পরীক্ষার ফল কয়েক সপ্তাহের মধ্যে আমাদের পাওয়া উচিত। আমরা এখনই নিশ্চিত নই যে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট কতটা গুরুতর।

ল্যানসেট সাময়িকীর নতুন একটি গবেষণার বরাত দিয়ে সেরাম সিইও বলেছেন, কোভিশিল্ডের কার্যকারিতা অনেক বেশি এবং এটি হাসপাতালে ভর্তি এবং মৃত্যুর সম্ভাবনা তাৎপর্যপূর্ণভাবে হ্রাস করে। কোভিশিল্ডের কার্যকারিতা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে কমে যাবে এমন হওয়ার সম্ভাবনা নেই বলে দাবি করেন তিনি।

প্রত্যেকের জন্য ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ পাওয়া আবশ্যক উল্লেখ করে সেরাম সিইও বলেন, এটি সুরক্ষিত থাকার প্রথম পদক্ষেপ। এর পরে বছরে বুস্টারের সাহায্যে কেউ সেই নিরাপত্তা বাড়াতে পারে।

সেরাম সিইও জানান, নতুন ভ্যাকসিন আনা হলে সেটি আগের ভ্যাকসিনের দামেই সবাইকে দেওয়া হবে। দাম বাড়ানো হবে না। বুস্টার ডোজটির দাম ৬০০ রুপি হতে পারে বলে জানান তিনি।

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
কোনো প্রতিরক্ষা ঠেকাতে পারবে না রাশিয়ার জিরকন মিসাইলকে

banglanewspaper

সফলভাবে জিরকন হাইপারসনিক ক্রুজ মিসাইলের পরীক্ষা চালিয়েছে রাশিয়া। গত সোমবার দেশটি জানিয়েছে, তারা জিরকন হাইপারসনিক মিসাইলের আরেকটি সফল পরীক্ষা চালিয়েছে এবং সেটি লক্ষ্যবস্তুকে আঘাত হানতে সক্ষম হয়েছে। নতুন হাইপারসনিক মিসাইলটি কোনো প্রতিরক্ষাব্যবস্থা ঠেকাতে পারবে না দাবি করছে রাশিয়া।

জিরকন হাইপারসনিক মিসাইল হলো পরবর্তী প্রজন্মের সবচেয়ে ভয়াবহ ক্ষেপণাস্ত্র। দূরপাল্লার এই ক্ষেপণাস্ত্রটিকে শনাক্ত করা এবং আটকানো কঠিন। এটি শব্দের পাঁচ গুণেরও বেশি গতিতে প্রায় ৬২০০ কিমি (৩৮৫০ মাইল প্রতি ঘণ্টা) গতিতে ভ্রমণ করতে সক্ষম।

জিরকন হাইপারসনিক মিসাইলের আরেকটি সফল পরীক্ষা চালানোর পর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, জিরকন হাইপারসনিক ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রটি নতুন প্রজন্মের কাছে অপ্রতিদ্বন্দ্বী অস্ত্র ব্যবস্থার অংশ হবে।

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ক্ষেপণাস্ত্রটি হোয়াইট সাগরে অ্যাডমিরাল গোর্শকভ যুদ্ধজাহাজ থেকে নিক্ষেপ করা হয়েছিল এবং ৪০০ কিলোমিটার (২৫০ মাইল) দূরে একটি নৌ লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করতে সক্ষম হয়েছে। মিসাইলটি তার লক্ষ্যবস্তুকে আঘাত হেনে একদম চুরমার করে দিয়েছে বলে বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে। ক্ষেপণাস্ত্রটির দ্বিতীয় পরীক্ষা দুই সপ্তাহের মধ্যে করার কথা জানানো হয়েছে।

একটি ছোট ভিডিও ক্লিপে দেখা যায় সাদা আলোর বিস্ফোরণে ক্ষেপণাস্ত্রটি রাতের আকাশকে আলোকিত করে।

২০১৮ সালে নতুন হাইপারসনিক অস্ত্র তৈরির ঘোষণা দিয়েছিলেন ভ্লাদিমির পুতিন। তিনি বলেছিলেন, রাশিয়া বিশ্বের যেকোনো জায়গায় আঘাত করতে এবং মার্কিন-নির্মিত ক্ষেপণাস্ত্র ঢাল এড়াতে সক্ষম।

রাশিয়ার পাশাপাশি হাইপারসনিক প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে চীন, উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র। এই ধরণের মিসাইল শব্দের থেকেও ৫ থেকে ৯ গুণ বেশি গতিতে ছুটতে পারে। ফলে এটিকে আটকানোর কোনো প্রযুক্তিই বিশ্বে আর নেই। বর্তমানের সবচেয়ে আধুনিক আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাগুলোও এর বিরুদ্ধে অকার্যকরি।

ট্যাগ: