banglanewspaper

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের হামিদ কারজাই বিমানবন্দরে সোমবার কমপক্ষে ৫টি রকেট হামলা হয়েছে বলে রয়টার্স, সিএনএন সহ একাধিক আন্তর্জাতিক সংবামাধ্যমে নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা বলেছেন, ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এই হামলা রুখে দিয়েছে।

বিমানবন্দরে সি-র‌্যাম প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা স্থাপন করা আছে। যা এই হামলা রুখে দিয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে। তাৎক্ষণিকভাবে এই হামলায় কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। সি-র‌্যাম হচ্ছে স্বয়ংক্রিয় একটি পদ্ধতি যা আগত হামলা নির্ণয় করে এবং মেশিনগান ব্যবহার করে হামলা প্রতিহত করে। এই পদ্ধতি ইরাক ও আফগানিস্তানে ব্যবহার করা হয় এবং মার্কিন বাহিনীর দিকে আসা যেকোনো হামলা সহজেই প্রতিরোধ করা হয়।


সোমবার সকালে কাবুলের বাসিন্দারা বলেন, তারা খুব ভোরে বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পেয়েছেন। যদি হামলার ধরন সম্পর্কে তারা পরিষ্কারভাবে কিছু বলতে পারেননি। এই বিস্ফোরণ কীভাবে হয়েছে তাও আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করা হয়নি।

যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তান থেকে তাদের বেসামরিক নাগরিক ও সেনা সদস্যদের প্রত্যাহারের কাজ একেবারে শেষ পর্যায়ে নিয়ে এসেছেন। এমনই সময়ে কাবুলে একের পর এক হামলার ঘটনা ঘটছে। গত বৃহস্পতিবার কাবুল বিমানবন্দরের নিকট হামলায় যুক্তরাষ্ট্রের ১৩ জন সেনা সহ প্রায় ১৭০ জন নিহত হয়। হামলার দায় স্বীকার করে ইসলামী জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস।

পরে গতকাল (রবিবার) কাবুল বিমানবন্দরের নিকট রকেট হামলার খবর পাওয়া যায়। রবিবারই যুক্তরাষ্ট্র কাবুল বিমানবন্দরের নিকট সন্দেহভাজন আত্মঘাতী হামলাকারীর উপর ড্রোন হামলা চালায়। যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, একটি গাড়িতে করে বিস্ফোরক দ্রব্য দিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। গাড়িটির লক্ষ্য ছিল কাবুল বিমানবন্দরে হামলা করা।

যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, সোমবারের রকেট হামলা চালিয়ে থাকতে পারে আইএস। তবে, বিষয়টি শতভাগ নিশ্চিত করতে পারেনি তারা।

ট্যাগ: bdnewshour24