banglanewspaper

ইসরায়েলি কারাগারে প্রায় দুই বছর আটক থাকার পর মুক্তি পেয়েছেন ফিলিস্তিনি রাজনীতিক ও নাগরিক সমাজের নেতা খালিদা জারার। খালিদা ফিলিস্তিনের বামপন্থী রাজনীতির পরিচিত মুখ ও বিলুপ্ত ফিলিস্তিনি লেজিসলেটিভ কাউন্সিলের (পিএলএ) সদস্য। 

স্থানীয় সময় রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পশ্চিম তীরের জেনিন শহরের একটি সীমান্তচৌকি দিয়ে ফিলিস্তিনে ফেরেন ৫৮ বছর বয়সী খালিদা।   

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, খালিদা জারারের দুই মেয়ে রয়েছে। স্বাস্থ্যগত জটিলতার কারণে রামাল্লায় গত জুলাইয়ে তার এক মেয়ের মৃত্যু হয়। মেয়ের জানাজায় মায়ের অংশ নেওয়ার জন্য ওই সময় খালিদা জারারকে মুক্তি দিতে ইসরায়েলকে আহ্বান জানিয়ে গণদাবি তোলা হয়েছিল। কিন্তু এরপরও ইসরায়েল ফিলিস্তিনি এমপি খালিদা জারারকে মুক্তি দেয়নি।

রামাল্লাভিত্তিক অধিকার সংগঠন আদামির প্রিজনার্স বলেছে, আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে খালিদার মতো অনেককেই আটক রেখেছে ইসরায়েল।

এদিকে, ইসরায়েলের কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর প্রথমে রামাল্লায় মেয়ে সুহার কবর জিয়ারত করেছেন ফিলিস্তিনি এমপি খালিদা। সেখান থেকে বের হয়ে তিনি রামাল্লায় তার কারামুক্তি উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

২০১৯ সালের ৩১ অক্টোবর নিজ বাসভবনে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর হাতে গ্রেফতার হন খালিদা জারার। প্রায় ৮ মাস পর তিনি মুক্তি পান। কিন্তু কোনো বিচার কিংবা অভিযোগ ছাড়াই প্রশাসনিক বন্দি নীতির আওতায় ২০ মাসের জন্য আবারও তাকে বন্দি করা হয়। চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত প্রশাসনিক বন্দি হিসেবে তিনি কারাভোগ করেছেন।

ট্যাগ: ফিলিস্তিনি

আন্তর্জাতিক
১৬ দেশে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা সৌদির

banglanewspaper

বিশ্বজুড়ে ফের করোনা মহামারির প্রাদুর্ভাব পুনরায় শুরু হওয়ায় দেশে সৌদি নাগরিকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। দেশটি বিশ্বের ১৬টি দেশে দেশের নাগরিকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে দৈনিক করোনা সংক্রমণ ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাওয়া সৌদি আরব এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

সৌদি নাগরিকদের যেসব দেশে ভ্রমণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। দেশগুলো হল:

১. লেবানন
২. সিরিয়া
৩. তুরস্ক
৪. ইরান
৫. আফগানিস্তান
৬. ভারত
৭. ইয়েমেন
৮. সোমালিয়া
৯. ইথিওপিয়া
১০. কঙ্গো গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র
১১. লিবিয়া
১২. ইন্দোনেশিয়া
১৩. ভিয়েতনাম
১৪. আর্মেনিয়া
১৫. বেলারুশ
১৬. ভেনিজুয়েলা

এদিকে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়া মাঙ্কিপক্স এখন পর্যন্ত সৌদি আরবে শনাক্ত হয়নি বলে রোববার আল-আরাবিয়ার এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী ডা. আবদুল্লাহ আসিরি বলেছেন, সৌদি আরবের স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা সন্দেহভাজন ‘মাঙ্কিপক্স’ আক্রান্ত রোগী পর্যবেক্ষণ ও শনাক্ত করতে সক্ষম।

জাতিসংঘের স্বাস্থ্যবিষয়ক এই সংস্থা বলেছে, গত ২১ মে পর্যন্ত বিশ্বের ১২টি সদস্য রাষ্ট্রে ৯২ জনের মাঙ্কিপক্স শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া আরও ২৮ জন মাঙ্কিপক্সে আক্রান্ত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। মাঙ্কিপক্সের বিস্তার কীভাবে রোধ করা যায় সে বিষয়ে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে বিস্তারিত নির্দেশনা এবং সুপারিশ তুলে ধরা হবে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
অস্ট্রেলিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী কে এই আলবানিজ?

banglanewspaper

অস্ট্রেলিয়ায় স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে জাতীয় নির্বাচন। ভোট গ্রহণ শেষ হলেও গণনা এখনো চলছে। ১৫১ আসনবিশিষ্ট পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভের জন্য দলগুলোকে অন্তত ৭২টি আসনে জয় পেতে হবে। এখন পর্যন্ত প্রাপ্ত ফলাফলে এগিয়ে আছে অ্যান্থনি আলবানিজের দল লেবার পার্টি। ইতিমধ্যে তার প্রতিদ্বন্দ্বী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন পরাজয় মেনে নিয়েছেন। আলবানিজকে অভিনন্দনও জানিয়েছেন বিদায়ী এ প্রধানমন্ত্রী। খবর আলজাজিরা।

অস্ট্রেলিয়াকে নেতৃত্ব দিতে যাওয়া অ্যান্থনি আলবানিজ একলা মায়ের একমাত্র সন্তান। সিডনিতে শ্রমজীবী মানুষদের বসবাসের একটি এলাকায় বড় হয়েছেন তিনি। আলবানিজের ডাক নাম ‘আলবো’। ২৬ বছর আগে অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে প্রথমবারের মতো নির্বাচিত হন আলবানিজ। এই ২৬ বছরে লেবাররা মাত্র পাঁচ বছর ক্ষমতায় ছিল। 

২০০৭ সালের নির্বাচনে লেবার পার্টির কেভিন রাড বিজয় লাভ করার পর তার প্রশাসনের মন্ত্রী হন আলবানিজ। মন্ত্রী হিসেবে এটিই তার প্রথম দায়িত্ব। ২০১৯ সালে লেবারদের পরাজয়ের পর দলটির নেতৃত্ব নেন তিনি।

৫৯ বছর বয়সী লেবার নেতা সিডনিতে তার সমর্থকদের উদ্দেশে দেওয়া বক্তব্যে নিজেকে বিজয়ী দাবি করেছেন। তিনি বলেন, ‘অস্ট্রেলীয় জনগণ পরিবর্তনের জন্য ভোট দিয়েছেন। এ জয়ে আমি অভিভূত।’

আলবানিজ মনে করেন, রক্ষণশীল প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন সরকারের অধীন বিভাজনের রাজনীতি চলেছে। তিনি বলেন, ‘আমি দেশকে ঐক্যবদ্ধ করতে চাই। আমি মনে করি, জনগণের মধ্যে অনেক বিভাজন তৈরি হয়েছে। তারা জাতি হিসেবে একত্র হতে চায়। আর এ ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিতে চাই আমি।’

আলবানিজ বলেন, ১২১ বছরের মধ্যে তিনিই একমাত্র প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী, যিনি অ্যাংলো সেলটিক গোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত নন। সিডনির উপকণ্ঠে অবস্থিত ক্যাম্পারডাউন এলাকায় নিজের বেড়ে ওঠার স্মৃতিও উল্লেখ করেন আলবানিজ। 

তিনি বলেন, ‘আমার মা আমার জন্য উন্নত জীবনের স্বপ্ন দেখতেন। আশা করছি, আমার জীবনের এই ইতিহাস অস্ট্রেলীয় নাগরিকদের উচ্চ শিখরে পৌঁছাতে অনুপ্রেরণা দেবে।’

‘আমি চাই, অস্ট্রেলিয়া এমন একটি দেশ হবে, যেন যেখানেই আপনারা বেড়ে ওঠেন না কেন, যাকেই আপনারা উপাসনা করেন না কেন, যা কিছু পছন্দ করেন কিংবা আপনার নামের শেষ অংশ যা-ই হোক না কেন, আপনাদের জীবনের জন্য তা বাধা তৈরি করবে না।’

১৯৬০-এর দশকে সামাজিকভাবে রক্ষণশীল অস্ট্রেলিয়ায় একটি শ্রমজীবী রোমান ক্যাথলিক পরিবারে জন্ম নেন আলবানিজ। এমন সমাজে কেউ যেন তাকে ‘অবৈধ’ বলতে না পারে, সে জন্য শৈশবে আলবানিজকে বলা হয়েছিল, তার বাবা কার্লোস আলবানিজ ইউরোপে এক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন। 

বয়স ১৪ বছর হওয়ার পরই সত্যি কথা জানতে পারেন তিনি। তখন আলবানিজের মা জানান, তার বাবা মৃত নন এবং তার মা-বাবার কখনো বিয়ে হয়নি।

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
ফ্রান্সে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত ৫

banglanewspaper

ইউরোপের দেশ ফ্রান্সের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকা গ্রেনোবলের কাছে ভারসাউড এয়ারফিল্ড থেকে উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পর একটি পর্যটন বিমান দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। শনিবার (২১ মে) এ দুর্ঘটনায় একই পরিবারের চার সদস্যসহ পাঁচজন নিহত হয়েছেন বলে উদ্ধারকারী সংস্থা জানিয়েছে। খবর এনডিটিভি।

যাত্রী নিয়ে উড্ডয়নের পর শনিবার বিকেলে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে পর্যটন বিমানটি। ফলে সেখানে কিছুক্ষণের জন্য ফ্লাইট বন্ধ ছিল। একজন প্রত্যক্ষদর্শী ঘটনাটি প্রত্যক্ষ করার পর জরুরি পরিষেবায় যোগাযোগ করলে উদ্ধার অভিযান শুরু হয়।

বিমানের ধ্বংসাবশেষের ভেতর থেকে চারজন প্রাপ্তবয়স্ক এবং একটি শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে চারজন ছিলেন এক পরিবারের সদস্য।

ঘটনার পর আগুর নেভানোর কাজ শুরু করে দেশটির দমকল বাহিনী। ঘটনাস্থলে প্রায় ৬০ জন দমকলকর্মী মোতায়েন করা হয়েছে।

কী কারণে দুর্ঘটনা ঘটেছে তা এখনো নিশ্চিত নয়। এ ঘটনার পরপরই নড়েচড়ে বসে স্থানীয় প্রশাসন। সেখানকার আঞ্চলিক কর্মকর্তারা জানান, গ্রেনোবলের প্রসিকিউটররা কী ঘটেছে, তা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
সৌদিতে সব নারী ক্রু নিয়ে উড়ল প্রথম ফ্লাইট

banglanewspaper

রক্ষণশীল দেশ সৌদি আরবে এই প্রথম সব নারী ক্রু নিয়ে একটি ফ্লাইট পরিচালনা করা হয়েছে। দেশটিতে এ ঘটনাকে নারীর ক্ষমতায়নের মাইলফলক হিসেবে দেখা হচ্ছে। স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার দেশটির কর্মকর্তারা এ কথা জানিয়েছেন। খবর এএফপি।

সৌদি আরবে স্বল্প মূল্যের এয়ারলাইন ফ্লাইডেল ওই ফ্লাইট পরিচালনা করে। ফ্লাইটটি গতকাল রাজধানী রিয়াদ থেকে জেদ্দার উদ্দেশে রওনা হয়। 

ফ্লাইডেলের মুখপাত্র ইমাদ ইসকানদারানি বলেন, ওই বিমানের সাতজন ক্রুর মধ্যে বেশির ভাগই সৌদি নারী। ক্রুদের মধ্যে ফার্স্ট অফিসার সৌদি নারী। তবে ফ্লাইটটির ক্যাপ্টেনের দায়িত্বে ছিলেন বিদেশি একজন নারী।

সৌদি আরবের সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষ সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বিমান পরিচালনায় নারীদের ভূমিকা আরও জোরালো করার কথা বলেছে। 

২০১৯ সালে ফ্লাইডেল কর্তৃপক্ষ ঘোষণা দেয়, এটিই প্রথম ফ্লাইট যেখানে একজন সৌদি নারী কো–পাইলট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। সৌদি কর্মকর্তারা অ্যাভিয়েশন খাতের উন্নয়নের চেষ্টা চালাচ্ছেন। যাতে দেশটি বৈশ্বিক ভ্রমণের কেন্দ্রে পরিণত হয়।

সৌদি আরবের সিভিল অ্যাভিয়েশন ২০৩০ সালের মধ্যে বছরে ৩৩ কোটি যাত্রীর যাত্রা নিশ্চিত করতে চায়। এ সময়ের মধ্যে বিমান খাতে ১০ হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগের পরিকল্পনা রয়েছে সৌদি অ্যাভিয়েশনের। 

এ ছাড়া, রিয়াদে একটি মেগা বিমানবন্দর নির্মাণের পরিকল্পনাও রয়েছে। প্রতিবছর ৫০ লাখ টন কার্গো স্থানান্তরের পরিকল্পনা রয়েছে সৌদি অ্যাভিয়েশনের।

তবে সৌদিভিত্তিক এয়ারলাইনসগুলো এমিরেটস ও কাতার এয়ারওয়েজের মতো বৈশ্বিক অ্যাভিয়েশন জায়ান্টের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে পারবে কি না, তা নিয়ে শিল্প বিশ্লেষকদের আশঙ্কা রয়েছে।

সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান গাড়ি চালনায় নারীদের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার, পুরুষ অভিভাবক ছাড়া বাইরে বের হওয়াসহ বিভিন্ন বিধিনিষেধ তুলে নিয়েছেন।

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
বাইডেনসহ ৯৩৬ মার্কিনির ওপর রুশ নিষেধাজ্ঞা

banglanewspaper

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনসহ ৯৩৬ মার্কিনির রাশিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে মস্কো। এর মধ্যে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেনও রয়েছেন। একই সঙ্গে নতুন আরও ২৬ কানাডিয়ানের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশটি। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায়।

প্রতিবেদনটি বলছে, স্থানীয় সময় শনিবার নিষেধাজ্ঞা দেওয়া ব্যক্তিদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করেছে মস্কো। নিষেধাজ্ঞা দেওয়া ব্যক্তিরা অনির্দিষ্টকালের জন্য রাশিয়ায় প্রবেশ করতে পারবেন না।

মস্কো বলেছে, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও অন্যান্য শীর্ষ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে পূর্বে ঘোষিত পদক্ষেপগুলো কার্যকর থাকবে।

২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে আগ্রাসনের পর থেকে পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্কের অবনতি হয়। সেসময় মস্কোর ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে বলে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। একই সঙ্গে ইউক্রেনে অস্ত্র সরবরাহ বাড়াবে বলেও জানায়।

রাশিয়ার ওপর পশ্চিমা দেশগুলোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর গত ১৬ এপ্রিল যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয় রাশিয়া। ওই সময় যুক্তরাজ্যের ১০ জনের বেশি মন্ত্রী-সংসদ সদস্যের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে দেশটি। পরে যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস ও টেক জায়ান্ট মেটার প্রধান মার্ক জাকারবার্গের ওপরও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

শনিবার প্রথমবারের মতো নিষিদ্ধ আমেরিকানদের সম্পূর্ণ তালিকা প্রকাশ করে রাশিয়ার সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘আমরা জোর দিয়ে বলছি, ওয়াশিংটনের গৃহীত পদক্ষেপ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধেই বুমেরাং করেছে, তাদের প্রতি এমন তিরষ্কার অব্যাহত থাকবে।’

ট্যাগ: