banglanewspaper

২০০৮ সালের পর এই প্রথম এতটা দীর্ঘ সময়ের জন্য অকেজো হয়ে পড়েছিল হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রাম। দৈনন্দিন জীবনের অত্যন্ত প্রয়োজনীয় এই সব সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মগুলো হুট করেই বন্ধ হওয়ার ফলে সমস্যার সম্মুখীন হয়েছিলেন কোটি কোটি মানুষ।

এই সমস্যার কারণ খুঁজতে শুরু করেছেন সাইবার বিশেষজ্ঞরা। সাইবারক্রাইম রিপোর্টার ব্রায়ান কার্বস জানিয়েছেন, বর্ডার গেটওয়ে প্রোটোকলের সমস্যার কারণেই বন্ধ হয়ে গিয়েছিল ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপসহ আরও বেশ কিছু সার্ভিস।

এই বর্ডার গেটওয়ে প্রোটোকল আসলে কী?

বর্ডার গেটওয়ে প্রোটোকল অথবা বিজিপি আসলে এমন একটি প্রোটোকল, যা ইন্টারনেট সক্রিয় রাখতে সাহায্য করে। নেটওয়ার্কের নেটওয়ার্ক হিসাবে কাজ করে ইন্টারনেট। আর ইন্টারনেট সঠিক ভাবে কাজ না করলে ইন্টারনেট রাউটার বুঝতে পারে না কার সঙ্গে কানেক্ট করতে হবে। তবে, তার জন্য বিকল্পের ব্যবস্থা থাকে। যদিও, এই ক্ষেত্রে ফেসবুক অন্য নেটওয়ার্ককে বুঝিয়ে বলতে পারছিল না যে, তারা ইন্টারনেটের মধ্যেই উপস্থিত রয়েছে।

বর্ডার গেটওয়ে প্রোটোকল কীভাবে কাজ করে?

বিজিপি হল এমন একটি জিনিস, যা গুগল, ফেসবুক, ইউটিউবের মতো প্ল্যাটফর্মে যাওয়ার জন্য ম্যাপ তৈরি করে এবং সেই ম্যাপ আপডেট করতে থাকে। ওই ম্যাপ আপডেট করার সময় কোনও ভুল হলে গ্রাহক আর সেই ওয়েবসাইট ওপেন করতে পারবেন না।

গবেষকরা দাবি করছেন, বিজিপি আপডেট মেসেজ রাউটারকে যে কোনও পরিবর্তন সম্পর্কে জানিয়ে দেয়। গত রাতে ফেসবুকের পক্ষ থেকে অনেক রাউটিংয়ে পরিবর্তন হয়েছে। এর পরে রাউটগুলোকে তুলে নেওয়া হয়। ঠিক তখনই ফেসবুকের ডিএনএস সার্ভার বন্ধ হয়ে যায়।

ডিএনএস-এর মাধ্যমেই ফেসবুক ডটকম লিখলে নির্দিষ্ট আইপি অ্যাড্রেসে কোনও ওয়েবসাইট ওপেন হয়। আর ডিএনএস বন্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে ফেসবুক ডটকম ওয়েবসাইট টাইপ করলেও তা ওপেন করার ঠিকানা খুঁজে পায় না ইন্টারনেট।

ফোনের কন্ট্যাক্ট লিস্টের মতোই কাজ করে ডিএনএস সার্ভার। আপনার ফোনে কোনও নম্বর সেভ করা থাকলে সেই নম্বর প্রত্যেকবার সেভ করতে হয় না। একবার নম্বর সেভ করার পরের বার থেকেই ফোন নম্বর ডায়াল না করে নাম টাইপ করলেই সেই নম্বরে ফোন চলে যায়।

ঠিক তেমনই প্রত্যেক ওয়েবসাইট ওপেন করার জন্য প্রয়োজন হয় একটি আইপি অ্যাড্রেস। তবে, সব সময় এই আইপি অ্যাড্রেস টাইপ করে ওয়েবসাইট ওপেন করা সম্ভব। এই কারণেই ওয়েবসাইটের নাম টাইপ করে ওপেন করতে হয়। আর তখনই কাজে লাগে ডিএনএস সার্ভার।

ট্যাগ: ফেসবুক