banglanewspaper

গুঞ্জন বহু আগে থেকেই ছিল। চলতি বছরের মার্চে যখন নুসরাত জাহানের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর প্রকাশ হয়, তখনই কানাঘুষা শুরু হয় তার সঙ্গে অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের বিয়ে নিয়ে। যশকে যেমন নুসরাতের অনাগত সন্তানের বাবা মনে করা হচ্ছিল, তেমনই ফিসফাস চলছিল সাংসদ অভিনেত্রীকে বিয়ে করেছেন ‘গ্যাংস্টার’ তারকা। কিন্তু কোনো কিছু নিয়েই মুখ খুলছিলেন না যশ বা নুসরাত।

তবে একে একে সব গুঞ্জনই সত্যি বলে প্রমাণ হচ্ছে। নুসরাত জাহান ইতোমধ্যে ছেলে ঈশানের জন্ম নিবন্ধন করতে গিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন, তার সন্তানের বাবা যশ। এবার পরিষ্কার ইঙ্গিত দিলেন, যশই তার স্বামী। তারা বিয়ে করেছেন। কিন্তু কীভাবে?

ঘটনা হচ্ছে, রবিবার ছিল অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের জন্মদিন। এদিন গভীর রাতে একটি কেকের ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেন নুসরাত। যেখানে দেখা যায়, কেকের উপর ইংরেজি অক্ষরে লেখা, ‘ওয়াই ডি’। এ কথা স্পষ্ট যে যশের নামের প্রথম ইংরেজি অক্ষরগুলোকেই পাশাপাশি বসানো হয়েছে।

কিন্তু নিচের একটি লেখা থেকেই উঠল নতুন গুঞ্জন। লেখা, ‘হাসব্যান্ড’, অর্থাৎ ‘স্বামী’। আরও একটি জায়গায় লেখা, ‘ড্যাড’, অর্থাৎ ‘বাবা’। ঈশানের বাবা যে যশ, সে কথা আগেই প্রকাশ্যে এসেছিল। কিন্তু ‘স্বামী’ লেখা দেখেই প্রশ্ন জাগে, তবে কি যশের জন্মদিনে তাকে বিয়ের কথা স্বীকার করলেন নুসরাত?

যশ-নুসরাতের বিয়ে নিয়ে গুঞ্জন শুধু নায়িকার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার সময় থেকে নয়, তারও আগের। এ বছরের জানুয়ারিতে তারকা জুটি একসঙ্গে রাজস্থানের আজমীর শরীফে গিয়েছিলেন। সেখানে তাদের অনেকটা বর-বউয়ের সাজে দেখা যায়। ওই ভ্রমণের ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক মাধ্যমে। গুঞ্জন ওঠে, বিয়ে করে আশীর্বাদ চাইতে আজমীর শরীফে গিয়েছিলেন যশ-নুসরাত।

এরপর দক্ষিণ২৪ পরগনার দক্ষিনেশ্বর মন্দিরেও একসঙ্গে ধরা পড়েন যশ-নুসরাত। এ সময় সংসাদ অভিনেত্রীর মাথায় ছিল সিঁদুর। পরবর্তীতে ছেলে ঈশানের জন্মের পর এনা সাহা আয়োজিত বিশ্বকর্মা পূজায়ও দুই তারকাকে একসঙ্গে দেখা যায়। সেখানেও নুসরাত মাথায় সিঁদুর পরেছিলেন। তাতে যশের সঙ্গে তার বিয়ের গুঞ্জন আরও জোরালো হয়। সেই গুঞ্জনেই কি সিলমোহর দিলেন নায়িকা?

যশের আগে দিল্লির ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে সংসার করছিলেন অভিনেত্রী ও তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান। ২০১৯ সালের ১৯ জুন তুরস্কে গিয়ে তারা বিয়ে করেন। সেই বিয়েতে দুই পরিবারের সদস্য এবং ঘনিষ্ঠ কয়েকজন বন্ধুবান্ধব উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে আলাদা থাকতে শুরু করেন নিখিল-নুসরাত। কারণ, যশের সঙ্গে নুসরাতের ঘনিষ্ঠতা।

টলিউড সূত্রে খবর, নিখিলেন থেকে আলাদা হয়ে নিজের বালিগঞ্জের ফ্ল্যাটে যশের সঙ্গে লিভ টুগেদার করতেন নুসরাত। এরপর মার্চে নায়িকা জানান, তিনি মা হতে চলেছেন। এই খবর প্রকাশ হতেই নিজের অবস্থান পরিষ্কার করে দেন নিখিল জৈন। সাফ জানিয়ে দেন, এই সন্তানের বাবা তিনি নন। কারণ তারা কয়েক মাস ধরে আলাদা থাকছেন। তখনই ধরে নেওয়া হয়, নুসরাতের সন্তানের বাবা যশ।

নুসরাতের ইঙ্গিত সত্যি হলে, এটি তার তৃতীয় বিয়ে। দ্বিতীয় স্বামী ছিলেন নিখিল জৈন। এর আগে ২০১৩ সালে ভিক্টর ঘোষ নামে একজনকে বিয়ে করেন টলিউড নায়িকা। দীর্ঘদিন সে কথা লুকিয়ে রাখেন। অবশেষে ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে ভিক্টরের সঙ্গে নুসরাতের ডিভোর্স হলে প্রকাশ হয়ে যায় তাদের বিয়ের কথা।

ডিভোর্স হয়েছিল আদালতে। শুধু তাই নয়, এই ডিভোর্স পেতে ভিক্টরকে মোটা অংকের টাকা দিয়েছিলেন নুসরাত। গুঞ্জন আছে, ওই সময় নিখিলকে ভালোবেসে ভিক্টরের ঘর ছিলেন সাংসদ অভিনেত্রী। বছর না গড়াতে সেই নিখিলকে ছেড়েই আবার যশ দাশগুপ্তের হাত ধরেন নুসরাত। তার সন্তানের মা-ও হয়েছেন। ছেলের নামও রেখেছেন ‘স্বামীর’ নামের সঙ্গে মিলিয়ে।

ট্যাগ: নুসরাত