banglanewspaper

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি ও মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আগামী ১ নভেম্বরের পরিবর্তে ১ ডিসেম্বর বুধবার অনুষ্ঠিত হবে।

রবিবার (১০ অক্টোবর) নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি ও মহান স্বাধীনতার সূবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, সংশ্লিষ্ট অতিথি ও শিক্ষার্থীদের সশরীরে অংশগ্রহণের অনুকূল পরিবেশ পেতে এই সিদ্ধান্ত হয়।

এ বিষয়ে উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, রাষ্ট্রপতির ইচ্ছার কারণে শতবর্ষ উদযাপনের তারিখ পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। উপাচার্য, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন), কোষাধ্যক্ষ এবং আমি এই চারজনের একটি টিম রাষ্ট্রপতিকে শতবর্ষ অনুষ্ঠানের দাওয়াত দিতে গেলে তিনি জুম বা অনলাইনে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের পরিবর্তে সশরীরে উপস্থিত থাকার আগ্রহ দেখান।

এছাড়াও আমরা ধারণা করছি, বর্তমানে করোনার সংক্রমণ যেরকম কমেছে ডিসেম্বরে আরও কমে যাবে। সেসময় শিক্ষক, শিক্ষার্থী সবার সার্বিক অংশগ্রহণ প্রত্যাশিত। তাই সব দিক বিবেচনায় শতবর্ষ উদযাপনের অনুষ্ঠানটি ১ নভেম্বর থেকে পিছিয়ে ১ ডিসেম্বর করেছি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি ও মহান স্বাধীনতার সূবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটির সভায় অন্যান্যের মতো উপস্থিত ছিলেন- প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদসহ কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটির সদস্যরা।

ট্যাগ: ঢাবি