banglanewspaper

মহামারি করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে বিদায়ী বছর ২০২১ সালে দীর্ঘ ৮৫ দিন গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও সড়ক, রেল ও নৌপথে দুর্ঘটনার কোনো কমতি ছিল না। বিগত বছরে এই তিন পথে সর্বমোট ৬২১৩টি দুর্ঘটনায় ৮৫১৬ জন মারা গেছেন। সেই সঙ্গে ৯৭৫১ জন আহত হয়েছেন।

রবিবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনী মিলনায়তনে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি আয়োজিত ‘বার্ষিক সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিবেদন-২০২১ প্রকাশ’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সংগঠনটির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী।

প্রতিবেদন তুলে ধরে সংগঠনটির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী জানান, বিদায়ী ২০২১ সালে ৫৬২৯টি সড়ক দুর্ঘটনায় মোট ৭৮০৯ জন নিহত ও ৯০৩৯ জন আহত হয়েছেন। একই সময় রেলপথে ৪০২টি দুর্ঘটনায় ৩৯৬ জন নিহত ও ১৩৪ জন আহত হয়েছেন। নৌপথে ১৮২টি দুর্ঘটনায় ৩১১ জন নিহত ও ৫৭৮ জন আহত এবং ৫৪৪ জন নিখোঁজ হয়েছেন। সড়ক, রেল, নৌপথে সর্বমোট ৬২১৩টি দুর্ঘটনায় ৮৫১৬ জন নিহত ও ৯৭৫১ জন আহত হয়েছে।

দুর্ঘটনা পর্যাআলোচনায় দেখা গেছে, এসব দুর্ঘটনা কবলে পড়েছেন ২৩৫০ জন চালক, ১৭১৫ জন পথচারী, ১০১৭ জন পরিবহন শ্রমিক, ৪৩০ জন ছাত্রছাত্রী, ১১১ জন শিক্ষক, ২৩৭ জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, ১০৭৬ জন নারী, ৬৩৮ জন শিশু, ৪২ জন সাংবাদিক, ২৭ জন চিকিৎসক, ১৪ জন আইনজীবী ও ১৮ জন প্রকৌশলী এবং ১৬১ জন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী ও ১০ জন মুক্তিযোদ্ধা।

এসব সড়ক দুর্ঘটনার বেশ কিছু কারণ তুলে ধরে লিখিত বক্ত্যবে তিনি জানান, বেপরোয়া গতি, বিপদজনক ওভারটেকিং, রাস্তাঘাটের ত্রুটি, ফিটনেসবিহীন যানবাহন, যাত্রী ও পথচারীদের অসতর্কতা, চালকের অদক্ষতা, চলন্ত অবস্থায় মোবাইল বা হেডফোন ব্যবহার, মাদক সেবন করে যানবাহন চালানো, রেলক্রসিং ও মহাসড়কে হঠাৎ ফিডার রোড থেকে যানবাহন উঠে আসা, রাস্তায় ফুটপাত না থাকা বা ফুটপাত বেদখলে থাকা, ট্রাফিক আইনের দুর্বল প্রয়োগ, ছোট যানবাহন বৃদ্ধি, সড়কে চাঁদাবাজি, রাস্তার পাশে হাট-বাজার, ত্রুটিপূর্ণ যানবাহন রাস্তায় নামানো এবং দেশব্যাপী নিরাপদ ও আধুনিক গণপরিবহন ব্যবস্থার পরিবর্তে টুকটুকি, ইজিবাইক, ব্যাটারিচালিত রিকশা, মোটরসাইকেল, সিএনজি অটোরিকশা নির্ভর গণপরিবহন ব্যবস্থার দিকে ধাবিত হওয়ার কারণে সড়ক দুর্ঘটনা বেপরোয়াভাবে বাড়ছে।

এসময় সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সরকারের কাছে ১২ দফা সুপারিশ জানায় সংগঠনটি। দেশের জাতীয়, আঞ্চলিক ও অনলাইন সংবাদপত্রগুলোতে প্রকাশিত সড়ক দুর্ঘটনার সংবাদ মনিটরিং করে এ প্রতিবেদন তৈরি করা হযয়েছে বলে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন— বুয়েট দুর্ঘটনা গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালক ড. হাদিউজ্জামান, গণপরিবহন বিশেষজ্ঞ আবদুল হক, বিশিষ্ট মানবাধিকার কর্মী নুর খান লিটনসহ প্রমুখ।

ট্যাগ: রেল

জাতীয়
পদ্মা নদীর নামেই হবে সেতুর নাম

banglanewspaper

অবশেষে ঘোষণা হলো বহুল প্রতীক্ষিত পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের তারিখ। আগামী ২৫ জুন সকাল ১০টায় সাধারণ মানুষের জন্য খুলে দেওয়া হবে পদ্মা সেতু। মঙ্গলবার (২৪ মে) গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক শেষে এ কথা জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পদ্মা নদীর নামেই নামকরণ করা হবে পদ্মা সেতুর।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে পদ্মা সেতুর দুটো সামারি (সার সংক্ষেপ) দিয়েছিলাম। একটা পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সামারি, যেখানে তিনি ২৫ জুন তারিখ লিখে সই করেছেন। আরেকটি ছিল পদ্মা সেতুর নাম ‘শেখ হাসিনা সেতু’ করার। সেটিতে তিনি সই করেননি। তিনি বলেছেন, পদ্মা সেতুর নাম পদ্মা নদীর নামেই হবে। এখানে কারও নাম থাকার দরকার নেই।

সেতুমন্ত্রী বলেন, আগামী ২৫ জুন (শনিবার) সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বহুল কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতুর উদ্বোধন ঘোষণা করবেন।

উদ্বোধনের দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে উদ্বোধনের দিন সেতুর দুই প্রান্তে নানান আনুষ্ঠানিকতা থাকবে।

ট্যাগ:

জাতীয়
‘ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন স্বাধীনতা খর্ব করতে করা হয়নি’

banglanewspaper

আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেছেন, ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন কোনো মাধ্যমের স্বাধীনতা খর্ব করার জন্য করা হয়নি। এটা কখনোই করা হবে না।

মঙ্গলবার (২৪ মে) রাজধানীর বনানীতে ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের নতুন কমিটির দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, কিছু অন্যায়-অপরাধ আছে যা প্রচলিত আইনে করা সম্ভব নয়। এই কারণে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। এই আইনের যখন মিস ইউজ করা হয়, তখন আমরা সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে আলোচনা করে আমরা এটা করেছি। এই আইনে কিছু তড়িৎ সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে, যার মাধ্যমে দ্রুত মামলা নিষ্পত্তি করা সম্ভব।

ট্যাগ:

জাতীয়
ইমিগ্রেশনে হজযাত্রীদের টিকা সনদ দেখাতে হবে

banglanewspaper

চলতি বছর হজযাত্রীদের বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশনের সময় স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকা গ্রহণের সনদ দেখাতে হবে। এজন্য টিকা সনদ সঙ্গে রাখতে হবে।

মঙ্গলবার (২৪ মে) ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে হজযাত্রীদের নিকটবর্তী স্বাস্থ্যকেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে টিকা গ্রহণ এবং স্বাস্থ্য পরীক্ষার সনদ গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। সোমবার (২৩ মে) থেকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকা প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, টিকা গ্রহণ ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার সনদ গ্রহণের সময় অনুসরণীয় বিষয়সমূহ হলো-

(ক) সরকারি হাসপাতাল অথবা সরকার কর্তৃক অনুমোদিত বেসরকারি যেকোনো হাসপাতাল/ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে বুকের এক্সরে, ইসিজি, ব্লাড গ্রুপ, ইউরিন-আরএমই, ব্লাডসুগার রিপোর্ট উল্লেখিত টিকা কেন্দ্রে আসার সময় সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। এসব পরীক্ষা বিগত তিন মাসের মধ্যে করা হয়ে থাকলে পুনরায় পরীক্ষার প্রয়োজন নেই। শুধু পূর্বের স্বাস্থ্য পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে টিকা কেন্দ্রে উপস্থিত থাকতে হবে।

(খ) বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীদের স্ব-স্ব এজেন্সির মাধ্যমে ই-হেলথ প্রোফাইল ফরমের প্রিন্ট কপি সঙ্গে আনতে হবে।

(গ) সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীরা নিকটবর্তী রেজিস্ট্রেশন সেন্টার (ইসলামিক ফাউন্ডেশনের জেলা কার্যালয়, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, ইউডিসি, হজ অফিস, আশকোনা) হতে ই-হেলথ প্রোফাইল ফরম প্রিন্ট করে এবং নিবন্ধন সনদ সঙ্গে আনতে হবে।

(ঘ) প্রয়োজনে হজ বিষয়ক পোর্টাল https://prp.pilgrimdb.org/web/pilgrimsearch?q= ঘ এ গিয়ে `ঘ’ এর পরিবর্তে তার ট্র্যাকিং নম্বর (যেমন ঘ.............৪) লিখে সার্চ দিলে ই-হেলথ প্রোফাইল ফরম প্রিন্ট করা যাবে।

(ঙ) বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজ এজেন্সিসমূহ স্ব-স্ব ইউজার আইডির মাধ্যমে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকা গ্রহণের সনদ প্রিন্ট করে হজযাত্রীকে সরবরাহ করবে।

(চ) সরকারি ব্যবস্থাপনা হজযাত্রীরা সংশ্লিষ্ট টিকাদান কেন্দ্র অথবা নিকটবর্তী রেজিস্ট্রেশন সেন্টার (ইসলামিক ফাউন্ডেশনের জেলা কার্যালয়, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, ইউডিসি, হজ অফিস, আশকোনা) হতে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকা গ্রহণ সনদের প্রিন্ট সংগ্রহ করবেন।

(ছ) কোনো হজযাত্রী নির্ধারিত সময়ে টিকা গ্রহণে ব্যর্থ হলে আগামী ২৫ মে থেকে আশকোনাস্থ হজক্যাম্পে স্থাপিত মেডিকেল সেন্টার থেকে টিকা গ্রহণ ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার সনদ গ্রহণ করবেন।

এদিকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক মঙ্গলবার জানিয়েছেন, সৌদি বাংলাদেশ দ্বি-পাক্ষিক হজচুক্তি অনুসারে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে হজে গমনকারী বাংলাদেশের সব হজযাত্রী ডেডিকেটেড হজ ফ্লাইটে সৌদি আরব গমন করবেন এবং একই সাথে ঢাকায় তাদের প্রি-এরাইভাল ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করা হবে। এ অবস্থায় ৩১ তারিখের পরিবর্তে আগামী ৫ জুন থেকে হজ ফ্লাইট শুরু করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বেসরকারি বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়কে ইতোমধ্যে চিঠির মাধ্যমে অনুরোধ করা হয়েছে।

চাঁদ দেখাসাপেক্ষে আগামী ৮ জুলাই সৌদি আরবে হজ অনুষ্ঠিত হবে। এবার বাংলাদেশ থেকে হজ পালনের সুযোগ পাবেন ৫৭ হাজার ৫৮৫ জন। 
 

ট্যাগ:

জাতীয়
ফ্রান্সের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন

banglanewspaper

ফরাসি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে এলিজাবেথ বর্নি নিয়োগ পাওয়ায় তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশটির ইতিহাসে গত ৩০ বছরের মধ্যে এই প্রথম কোন নারী এই সম্মানজনক পদে অধিষ্ঠিত হলেন।

মঙ্গলবার (২৪ মে) ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রীর কাছে লেখা এক অভিনন্দন বার্তায় শেখ হাসিনা বলেন, একজন রাজনীতিবিদ ও প্রশাসক হিসেবে আপনার অভিজ্ঞতা কার্যকরভাবে দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে আপনাকে ভালো অবস্থানে নিয়ে যাবে।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস শাখার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, অভিনন্দন বার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর দ্বিতীয় মেয়াদ চলাকালে তার আদেশ বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে এলিজাবেথ বর্নির অবদান হবে গুরুত্বপূর্ণ।

প্রধানমন্ত্রী পুনর্ব্যক্ত করেন, ৫০ বছর আগে বাংলাদেশ ও ফ্রান্সের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার পর থেকে বাণিজ্য, বিনিয়োগ, পানি, উন্নয়ন, বিমান পরিবহন, জলবায়ু-সংক্রান্ত পদক্ষেপ ও শিক্ষা বিনিময়সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে গতিশীল সহযোগিতা মাধ্যমে আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক জোরদার হওয়ার কথা।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের মূল্যবান চলমান অংশীদারত্বের আরও বিভিন্ন ক্ষেত্রে আপনার সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার ব্যাপারে আমি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

প্রধানমন্ত্রী ফ্রান্সের নতুন প্রধানমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য, সুখ ও সফলতা এবং বন্ধুপ্রতিম ফ্রান্স প্রজাতন্ত্রের জনগণের অব্যাহত শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন। সূত্র: বাসস

ট্যাগ:

জাতীয়
‘নিয়ম না মানলে পাবেনা মদের লাইসেন্স’

banglanewspaper

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কয়েকটি ক্রাইটেরিয়া আছে যারা সেগুলো ফুলফিল করতে পারবে, কেবল তারাই মাদকদ্রব্য বিক্রির লাইসেন্স পাবে।

মঙ্গলবার (২৪ মে) সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে দেশের ১৫টি বেসরকারি মাদক নিরাময় ও পুনর্বাসন কেন্দ্রকে আর্থিক অনুদান দেওয়া অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, একটা হলো সফট ড্রাগস, আরেকটি হলো হার্ড ড্রাগস। সফট ড্রাগস সারা বিশ্বেই চলছে। আমাদের এখানেও লাইসেন্সের মাধ্যমে নির্দিষ্ট কয়েকটি প্রতিষ্ঠানকে, কয়েকটি হোটেল-রেস্টুরেন্ট-ক্লাবকে লাইসেন্স দিয়েছি। তারা শর্ত মেনে চলছে… যারা শর্ত মানছে, তারা তা মেনে চলছে, পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে লাইসেন্স দিচ্ছি।  

আসাদুজ্জামান খান কামাল আরও বলেন, আওতা বাড়বে কিনা এটা নির্ভর করে তারা আমাদের নিয়ম-কানুন কতটা মেনে চলতে পারছে বা পারবে। এটা একটি চলমান প্রক্রিয়া। যারাই আমাদের নিয়ম মেনে চলতে পারবে, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কয়েকটি ক্রাইটেরিয়া আছে যখন সেগুলো ফুলফিল করতে পারবে, তখন তারা লাইসেন্স পাবে।

সুরা নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধন হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আইন যখনই প্রয়োজন হয়, তখনই সেটা ব্যবহার করা হয়। এখন মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি আইন রয়েছে, সেখানে প্রয়োজনে আমরা ব্যবস্থা নেব। কিন্তু এখনই আমরা মনে করছি না সেটার প্রয়োজন হচ্ছে।

মাদকের ভয়াবহতার বিষয়ে একটি ঘটনা তুলে ধরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মাদকাসক্ত সন্তানকে আটক করতে আমার কাছে এসেছিলেন বাবা-মা। দুজনেরই অঝোরে কান্না। বলছেন যে, আমার ছেলেকে আপনি আটক করেন। কেন তোমার ছেলেকে আটক করবো- এ প্রশ্ন করতেই ওই সন্তানের বাবা-মা বলেন, আমরা কিছুই করতে পারছি না। আমার বাড়িঘরের সমস্ত জিনিস বিক্রি করে দিচ্ছে। আমরা তার বাবা-মা। আমাদেরও মারছে।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা নিশ্চয়ই ঐশীর কথা ভুলে যাননি। মাদকাসক্ত হলে মানুষ কী করে? তাদের যে জ্ঞান তা হারিয়ে ফেলে, সবকিছু হারিয়ে ফেলে। সেটার জন্য তাদের মানসিক চিকিৎসার প্রয়োজন। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনা মোতাবেক আমরা কাজ করছি।

ট্যাগ: