banglanewspaper

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘যে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও তার ভাই অর্থ পাচারের দায়ে আদালতে দন্ডিত, যাদের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া কালো টাকা সাদা করেছেন, যাদের আমলে দেশ পরপর পাঁচবার দুর্নীতিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়, তাদের মুখে অর্থ পাচার নিয়ে কথা মানায় না।’

পিকে হালদার ধরা পড়ার পর বিএনপি নেতারা অর্থ পাচার নিয়ে নানা কথা বলছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘যে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের অর্থ পাচারের বিষয়ে এফবিআই এসে সাক্ষ্য দেয়, তার ভাইয়ের অর্থ পাচার সিঙ্গাপুরে উদঘাটিত হয় এবং সেই অর্থ ফেরত আনা হয় ও দুর্নীতির কারণে তারা তো বিশ্বচোর ছাড়া কিছু নয় এবং বয়সে আমার জ্যেষ্ঠ ফখরুল সাহেবের প্রতি যথাযথ সম্মান রেখেই আমি অপ্রিয় হলেও সত্য একটি কথা বলতে চাই, তিনি সেই বিশ্বচোরের মুখপাত্র।’

সোমবার (১৬ মে) দুপুরে রাজধানী শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মিলনায়তনে আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ উপ-কমিটি আয়োজিত ‘ঐতিহাসিক ১৭ই মে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনঃ মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পুন:প্রতিষ্ঠা, গণতন্ত্রে উত্তোলন এবং সমৃদ্ধ বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সমসাময়িক প্রসঙ্গে তিনি এসব কথা বলেন। 

ড. হাছান আরও বলেন, ‘যারা এই ধরণের অর্থ পাচার করেছে, আমরা সেগুলো উদঘাটন করছি, তাদেরকে আইনের আওতায় আনছি এবং সেই কারণেই পিকে হালদার ধরা পড়েছে। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এবং তার ভাই ছাড়াও আরও কারা অর্থ পাচার করেছে আমাদের জানা আছে, আস্তে আস্তে সেগুলোও আপনারা জানতে পারবেন। আমরা সেগুলো উদঘাটন করছি। জননেত্রী শেখ হাসিনা সেগুলোর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করছেন এবং এটি অব্যাহত থাকবে।’

সরকারকে শ্রীলংকার উদাহরণ দেওয়াকে বিএনপির অনর্থক অপপ্রচার বলে বর্ণনা করেন হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘শ্রীলংকার উদাহরণ বাংলাদেশকে দিয়ে লাভ নেই। যে দেশ নিজের টাকায় পদ্মা সেতু করে, যে দেশ শ্রীলংকাকে দুইশ’ মিলিয়ন ডলার ঋণ দেয় এবং ফেরত দিতে না পারছে না বিধায় ঋণ পরিশোধের সময়সীমা আমরা বাড়িয়ে দিয়েছি, সেই দেশ, সেই সরকারকে এই উদাহরণ দেয়া অনর্থক এবং অপপ্রচার।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আন্দোলনের কথা বলে বিএনপি সারাদেশে সমাবেশের নামে নিজেরাই মারামারি করে। আমরা এখনো মাঠে নামি নাই, যদি বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অপচেষ্টা চালানো হয়, আমরা মাঠে নামবো। যারা উঁচু গলায় বক্তৃতা করেন, কি হলে, কি করলে তারা গর্তে লুকাবেন সেটা আমরা ভালো করেই জানি।’ 

এর আগে বক্তৃতায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘১৯৮১ সালের ১৭ মে প্রকৃতপক্ষে ব্যক্তি শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ছিলো না, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্যকন্যা যার ধমনিতে শিরায় বঙ্গবন্ধু রক্তস্রোত প্রবহমান, যার কণ্ঠে বঙ্গবন্ধুর কণ্ঠ প্রতিধ্বনি হয়, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে তার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে প্রকৃতপক্ষে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, গণতন্ত্রের অগ্নিবীণা, অন্যায় অনাচারের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠকণ্ঠের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন হয়েছিলো।’ 

ড. হাছান বলেন, ‘গত ৪১ বছরে পথ চলায় সমস্ত প্রতিবন্ধকতাকে উপড়ে ফেলে জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মানুষের পাশে থেকেছেন এবং আছেন। তার নেতৃত্বেই বাংলাদেশে গণতন্ত্র বাক্সবন্দি থেকে মুক্ত হয়েছে। তার নেতৃত্বেই বাংলাদেশের মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তি এসেছে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্নের বাস্তবায়ন করে যেতে পারেননি আজকে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে বঙ্গবন্ধুর সেই স্বপ্ন বাস্তবায়িত হচ্ছে।’ 

আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ উপ-কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. খন্দকার বজলুল হকের সভাপতিত্বে ও বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় শেখ হাসিনার ৪১তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মশিউর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ড. আব্দুস সামাদ, সামাজিক বিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম, প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ, বিশিষ্ট কলাম লেখক সুভাষ সিংহ রায়।

ট্যাগ: তথ্যমন্ত্রী

জাতীয়
সৌদি পৌঁছেছেন ৩৪ হাজার ৪৯১ হজযাত্রী

banglanewspaper

এ বছর পবিত্র হজ পালনের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩৪ হাজার ৪৯১ জন সৌদি আরবে পৌঁছেছেন।

শুক্রবার (২৪ জুন) ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইটি হেল্পডেস্কের হজ সম্পর্কিত প্রতিদিনের বুলেটিন থেকে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) দিনগত রাত ২টা পর্যন্ত ৯৫টি ফ্লাইটে সৌদি আরবে পৌঁছেছেন ৩৪ হাজার ৪৯১ জন হজযাত্রী।

হজ বুলেটিনে বলা হয়, সরকারি ব্যবস্থাপনার ৩ হাজার ৩৮৫ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনার ৩১ হাজার ১০৬ জন হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। ৯৫টি ফ্লাইটের মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস পরিচালিত ৫২টি, সৌদি এয়ারলাইনস পরিচালিত ৩৮টি এবং ফ্লাইনাস এয়ারলাইনস পরিচালিত পাঁচটি ফ্লাইট রয়েছে।

উল্লেখ্য, চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৮ জুলাই হজ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। এবার বাংলাদেশ থেকে ৫৭ হাজার ৫৮৫ জন হজে সৌদি যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন। গত ৫ জুন হজের প্রথম ফ্লাইট ঢাকা ছাড়ে। শেষ হবে ৩ জুলাই। হজ শেষে ফিরতি ফ্লাইট শুরু হবে আগামী ১৪ জুলাই। শেষ হবে ৪ আগস্ট।

ট্যাগ:

জাতীয়
দেশে করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২১০১

banglanewspaper

করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও দুইজনের মৃত্যু এবং দুই হাজার ১০১ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। মারা যাওয়া দু’জনই ঢাকার বাসিন্দা। এর মধ্যে একজন নারী, একজন পুরুষ।

সোমবার (২৭ জুন) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে, গতকাল (রোববার) করোনায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে এবং ১ হাজার ৬৮০ জনের দেহে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৭৯ জন। নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৩ হাজার ৯২০টি এবং পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ হাজার ৮২০টি। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ২০ শতাংশ। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

দেশে এখন পর্যন্ত মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৯ লাখ ৬৭ হাজার ২৭৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৯ হাজার ১৪২ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৯ লাখ ৬ হাজার ৮৬৭ জন।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম তিনজনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনায় একজনের মৃত্যু হয়।

ট্যাগ:

জাতীয়
পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খুলে ৭ দিনের রিমান্ডে বায়েজিদ

banglanewspaper

পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাটবল্টু খুলে টিকটক ভিডিও করা বায়েজিদের সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার (২৭ জুন) বিকেলে শরীয়তপুরের মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক মো. সালেহুজ্জামান এ আদেশ দেন।

গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের কোর্ট পরিদর্শক মো. জাহাঙ্গীর।

এর আগে বায়েজিদের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

সোমবার (২৭ জুন) এক সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির সাইবার পুলিশের বিশেষ পুলিশ সুপার মো. রেজাউল মাসুদ বলেন, বায়েজিদ ছাড়াও তার সহযোগী অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে এ মামলায় আসামি করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, পদ্মা সেতুর নাটবল্টু হাত দিয়ে খোলা সম্ভব নয়। এতে বোঝা যায় এটি হাত দিয়ে খোলা হয়নি, সরঞ্জাম ব্যবহার করা হয়েছে।

এর আগে রোববার (২৬ জুন) বিকেলে বায়েজিদকে রাজধানীর শান্তিনগর এলাকা থেকে আটক করে সিআইডি। তার গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালীতে।

ট্যাগ:

জাতীয়
সাংবাদিক পরিবারের সদস্যদেরও অনুদান দেওয়া হবে : তথ্যমন্ত্রী

banglanewspaper

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যারা সাংবাদিক শুধু তাদের নয়, তাদের পরিবারের সদস্যদেরও চিকিৎসা দেওয়া হবে। এ ছাড়াও শিক্ষার ক্ষেত্রে সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে অনুদান দেওয়া হবে।

রোববার (২৬ জুন) দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের ২৩তম সভা শুরুর আগে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।

এ সময় তিনি বলেন, আমরা বলেছিলাম, সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট সব সাংবাদিকের জন্য। এমনকি যিনি প্রেস ক্লাবের সামনে দাঁড়িয়ে সরকারকে কালই ক্ষমতা থেকে নামিয়ে ফেলেন তাকেও দেওয়া হবে। যারা প্রতিদিন আমাদের সমালোচনা করেন, আমাদের বিরুদ্ধে লেখেন, তাদেরও আমরা এই কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমে সহায়তা করেছি এবং ভবিষ্যতেও করব।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিষ্ঠা করেছেন। আজকে কল্যাণ ট্রাস্ট সাংবাদিকদের জন্য একটি ভরসার জায়গা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ট্রাস্টের নিয়ম অনুযায়ী যারা সাহায্য পাওয়ার যোগ্য তারা সবাই পাচ্ছেন।

ট্যাগ:

জাতীয়
পদ্মা সেতুতে চলছে সেনাবাহিনীর টহল

banglanewspaper

পদ্মা সেতু পারাপারে সাধারণ মানুষের জন্য নির্ধারিত আইন যথাযথভাবে পালনে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। টোল প্লাজায় মাইকিং করে মানুষকে সচেতনের পাশাপাশি সেনাবাহিনীকেও টহল দিতে দেখা গেছে।

সোমবার (২৭ জুন) সকাল থেকেই এমন চিত্র দেখা গেছে।

এদিকে নির্দেশনা মোতাবেক, এদিন সকাল থেকে সেতুতে মোটরসাইকেল প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। যদিও কিছু বাইকার জোর করে যাওয়ার চেষ্টা করেছিল। এ ছাড়া ছবি তোলা বা হেঁটেও কাউকে সেতুতে উঠতে দেখা যায়নি। কিছু জায়গায় গাড়ি থামিয়ে মানুষজনকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেলেও সেনাবাহিনীর টহল গাড়ি তাদের সরিয়ে দিয়েছে। তাছাড়া পুরো সেতুতেই রোববারের চেয়ে বেশি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের দেখা গেছে।

সেতু কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আবুল হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, রোববারের বিশৃঙ্খলার কারণে সেতুর নিরাপত্তা, মানুষের নিরাপত্তা ও দুর্ঘটনা রোধে নজরদারি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। সে অনুযায়ী সোমবার সকাল থেকে সেতুতে সেনার সদস্যরা টহল দিচ্ছে।

এর আগে পদ্মা সেতুর খুলে দেওয়ার প্রথম দিনে (রোববার) ব্যাপক বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। নিয়ম ভেঙে সেতুতে ছবি তোলা, টিকটক বানানো, নাট-বল্টু খোলা, মূত্র বিসর্জন, টোল প্লাজার ব্যারিয়ার ভাঙন ও মালামাল-যন্ত্রপাতি চুরির মতো নানান ঘটনা ঘটেছে। এ ছাড়া মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় দুই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সেতুতে এমন বিশৃঙ্খলা দেখে নড়েচড়ে বসে কর্তৃৃপক্ষ। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়।

ট্যাগ: