banglanewspaper

 

বিশ্বে কারাদণ্ডের হারে সবচেয়ে বেশি দণ্ডিত চীনের এই উইঘুর মুসলিমরা। চীনের জিনজিয়াং প্রদেশের কোনাশেহের কাউন্টির উইঘুর মুসলমানদের মধ্যে ২৫ জনে একজন কারাবন্দি। সম্প্রতি ফাঁস হওয়া তথ্য পর্যালোচনা করে এপি এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। খবর প্রকাশ করেছে আলজাজিরা।

আন্তর্জাতিক ভাবে প্রকাশিত এপির এই তালিকায় প্রায় ১০ হাজার উইঘুর মুসলিমের নাম রয়েছে যাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ‘সন্ত্রাসবাদের’ অভিযোগ এনেছে চীন সরকার। গত কয়েক বছর ধরে চীন সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিমদের ওপর নৃশংস দমন-পীড়ন চালিয়ে যাচ্ছে। অথচ তারা এটাকে ‘সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ’ হিসেবে বর্ণনা করে থাকে। বন্দি উইঘুরদের নামে এটি সবচেয়ে বড় তালিকা, তবে অনুমান করা হয় তার চেয়েও বেশি লোককে বন্দি শিবির এবং কারাগারে রাখা হয়েছে।

বিশ্ব গণমাধ্যমে এর আগেও চীন উইঘুরদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে দীর্ঘমেয়াদি কারাবাসের সংবাদ প্রচারিত হয়েছে। তাদের দমনের জন্য অস্ত্র হিসেবে আইনকে ব্যবহার করছে। আন্তর্জাতিক সমালোচনার মুখে, চীনা কর্মকর্তারা ২০১৯ সালে স্বল্পমেয়াদি, বিচারবহির্ভূত বন্দিশিবির বন্ধ করার ঘোষণা দেয় যেখানে উইঘুরদের কোনো অভিযোগ ছাড়াই রাখা হয়। যদিও হাজার হাজার উইঘুর মুসলিম দীর্ঘদিন এমনকি কয়েক দশক ধরে কারাগারে ভুগছেন।

কোনাশেহের কাউন্টিতে ২ লাখ ৬৭ হাজার মানুষের বসবাস। ওই কাউন্টি জুড়ে জেলের মেয়াদ ছিল ২ থেকে ২৫ বছর পর্যন্ত এবং গড়ে ৯ বছর। ২০১৭ সালের পর থেকে বেশি ধরপাকড় শুরু হয় উইঘুর মুসলিম অধ্যুষিত অঞ্চলটিতে। ধরার পরই কারাগারে রাখা হয় তাদের। এখানকার কারাগারে আছে নারী, পুরুষ, যুবক, এমনকি বয়স্ক ব্যক্তিরাও। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মানুষের কারাবাস আমেরিকায়। তবে আমেরিকার চেয়ে ১০ গুণ বেশি মানুষ আছেন জিনজিয়াংয়ের কোনাশেহের এলাকার কারাগারে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটি স্পষ্টভাবে যে উইঘুর মুসলিম হওয়ার কারণেই এসব লোকজনকে টার্গেট করা হয়েছে এবং চীন সরকার তাদের জাতিগত স্বীকৃতি দিতে নারাজ।

চীনের জিনজিয়াং প্রদেশের মুখপাত্র এলিজান আনায়াতের বরাত দিয়ে প্রকাশ করা হয়েছে, এখানকার  আইন অনুযায়ী সাজা দেওয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, আমরা কখনই নির্দিষ্টভাবে নির্দিষ্ট অঞ্চল, জাতিগোষ্ঠী, ধর্ম, এমনকি উইঘুরদের টার্গেট করবো না। তিনি বলেন, যারা ভালো তাদের সঙ্গে কখনো খারাপ কিছু করব না, তবে যারা সন্ত্রাসী তাদের ছেড়ে দেওয়া হবে না।

ট্যাগ: মুসলিম

আন্তর্জাতিক
পরমাণু আলোচনায় সম্মত ইরান

banglanewspaper

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আবারও পরমাণু আলোচনায় সম্মত হয়েছে ইরান।

শনিবার (২৫ জুন) আল জাজিরা এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে গত মার্চ থেকে এই আলোচনা স্থগিত রয়েছে। তবে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতিবিষয়ক প্রধান জোসেফ বোরেলের তেহরান সফরে এ ব্যাপারে ইতিবাচক অগ্রগতির খবর এলো।

জানা গেছে, ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদুল্লাহিয়ান এবং জোসেফ বোরেল এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে নতুন করে আলোচনা শুরুর ঘোষণা দেন। এর মাধ্যমে ইইউয়ের মধ্যস্থতায় যুক্তরাষ্ট্র ও ইরান আবারও পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে আলোচনা শুরু করতে যাচ্ছে।

এর আগে, গত ২৪ মে জোসেফ বোরেল তেহরান পৌঁছান। এরপর তারা ইরানের পক্ষে পরমাণু আলোচনার প্রধান আলোচক আলী বাঘেরি কানি এবং দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির আব্দুল্লাহিয়ানের সঙ্গে দেখা করেন। সূত্র : আলজাজিরা

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
গুজরাট দাঙ্গা : মোদিকে নির্দোষ ঘোষণার রায় বহাল

banglanewspaper

গুজরাট দাঙ্গার মামলায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নির্দোষ ঘোষণার রায় বহাল রেখেছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

শুক্রবার (২৪ জুন) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই দাঙ্গায় নিহত কংগ্রেস নেতা এহেসান জাফরির স্ত্রী জাকিয়া মোদিকে অব্যাহতি দেওয়া এক রায়কে চ্যালেঞ্জ করে আবেদন করলে সুপ্রিম কোর্ট তা খারিজ করে দেয়। এতে নির্দোষই থাকলেন মোদি।

জানা গেছে, ২০০২ সালে গুজরাটে সাম্প্রদায়িক ওই দাঙ্গাকে ভারতের অন্যতম ভয়াবহ দাঙ্গা বলা হয়ে থাকে। দাঙ্গায় এক হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়, যাদের অধিকাংশই মুসলমান। এহসান জাফরি তাদের একজন। যিনি একজন প্রখ্যাত মুসলিম রাজনীতিবিদ এবং কংগ্রেস সংসদ সদস্য ছিলেন। দাঙ্গাকারীরা তাকে কুপিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যা করে। সে সময় ওই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন নরেন্দ্র মোদি। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, মুসলিমবিরোধী দাঙ্গা থামাতে সে সময় মোদি কোনো পদক্ষেপই নেননি।

এরপর এ ঘটনায় বিশেষ তদন্তকারী দল (এসআইটি) ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারিতে একটি রিপোর্ট জমা দেয়, যেখানে ‘কোনো বিচারযোগ্য প্রমাণ’ না থাকায় মোদিসহ অন্য ৬৩ জনকেও অব্যাহতি দেওয়া হয়।

সে সময় জাকিয়া জাফরি জানিয়েছিলেন, এসআইটি তদন্ত করেনি, অভিযুক্তদের রক্ষার চেষ্টা করেছিল। এই দাঙ্গায় ‘বৃহত্তর ষড়যন্ত্র’ রয়েছে। পরে নতুন তদন্ত চেয়ে আবেদন করেন জাকিয়া জাফরি। সূত্র : এনডিটিভি, ওয়ান ইন্ডিয়া

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতেই নিহত হয়েছেন শিরিন : জাতিসংঘ

banglanewspaper

ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতেই আল-জাজিরার সাংবাদিক শিরিন আবু আকলেহ নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

শুক্রবার (২৪ জুন) জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার অফিসের মুখপাত্র রাভিনা শামদাসানি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, সাংবাদিক শিরিনকে হত্যা এবং তার সহকর্মী আলী সামৌদিকে আহত করা গুলি ইসরায়েলি সেনাদের কাছ থেকে এসেছে। সশস্ত্র ফিলিস্তিনিরাদের গুলিতে তার মৃত্যু হয়নি।

উল্লেখ্য, গত ১১ মে দখলকৃত পশ্চিম তীরের জেনিন শহরে অভিযান চালায় ইসরায়েলি সেনারা। সংবাদ সংগ্রহের জন্য ঘটনাস্থলে ছিলেন শিরিন আবু আকলেহ। ওই সময় একটি গুলি সরাসরি তার মাথায় লাগে। এ সময় তাকে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ঘটনাস্থলে থাকা অন্য সাংবাদিকেরা জানান, ইসরায়েলের এক সেনা শিরিনের মাথায় গুলি করলে তার মৃত্যু হয়। তবে ইসরাইলের সেনারা তখন বলেছিল, জেনিন অভিযানের সময়ে সশস্ত্র ফিলিস্তিনিরা নির্বিচারে গুলি চালাচ্ছিল, তাদের গুলিতেই হয়তো শিরিনের মৃত্যু হয়। সূত্র : আলজাজিরা

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
বিয়ের অনুষ্ঠানে বরের গুলিতে বন্ধু নিহত (ভিডিও)

banglanewspaper

ভারতে এক বিয়ের অনুষ্ঠানে বরের গুলিতে তারই এক বন্ধু নিহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনের তথ্যমতে, দেশেটির উত্তর প্রদেশে সোনভদ্র জেলার ব্রাহ্মনগর এলাকায় বিয়ের অনুষ্ঠান উদযাপনের অংশ হিসেবে পিস্তল উঁচিয়ে গুলি করেন বর মনীশ মাধেশিয়া। এ সময় তার বন্ধু বাবু লাল যাদব গুলিবিদ্ধ হোন। তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে গেলেও বাঁচানো যায়নি।

পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনায় নিহতের পরিবার একটি এফআইআর নথিভুক্ত করেছে। অভিযুক্ত মনীশ মাধেশিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বন্দুকটিও জব্দ করা হয়েছে। সূত্র: এনডিটিভি

ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন...

ট্যাগ:

আন্তর্জাতিক
যুক্তরাষ্ট্রে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ৬ জন নিহত

banglanewspaper

যুক্তরাষ্ট্রে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ছয়জন নিহত হয়েছে। স্থানীয় সময় বুধবার সন্ধ্যায় দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য ভার্জিনিয়ার লোগান কাউন্টিতে এ ঘটনা ঘটে।

ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফএএ) একটি বিবৃতিতে বলা হয়, বেল ইউএইচ-ওয়ানবি হেলিকপ্টারটি বিকেল ৫টার দিকে বিধ্বস্ত হয়।

লোগান কাউন্টি অফিস অব ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্টের ডেপুটি ডিরেক্টর সোনিয়া পোর্টার সিএনএনকে বলেন, হেইউ নামে পরিচিত হেলিকপ্টারটি একটি গ্রামের সড়কে বিধ্বস্ত হয়েছে।

লোগান ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট অথরিটি অপারেশনের প্রধান রে ব্রায়ান্ট বলেন, ভিয়েতনাম যুদ্ধের সময়কার হেলিকপ্টারটি লোগান কাউন্টি বিমানবন্দরের বাইরে ছিল এবং পর্যটকদের জন্য ব্যবহার করা হচ্ছিল।

ব্রায়ান্ট বলেন, দমকল কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে হেলিকপ্টারটিতে আগুন জ্বলতে দেখেন এবং তারা পরে আগুন নিভিয়ে ফেলেন।

দুর্ঘটনার পর মালিকদের মধ্যে একজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন বলে জানান তিনি।

দুর্ঘটনাস্থল থেকে প্রায় এক মাইল দূরে বসবাসকারী ববি চাইল্ডস ৯১১ জরুরি সহায়তা চেয়ে কল করেন। তিনি ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে দেখেন হেলিকপ্টারটির আগুন নিয়ন্ত্রণের বাইরে যেতে শুরু করেছে। একজনকে হেলিকপ্টারটিতে আটকা থাকতে দেখেন।

তিনি বলেন, আমি যত দ্রুত যেতে পারি দৌড়ে হেলিকপ্টারটির কাছে পৌঁছাই। কিন্তু আগুন অত্যন্ত তীব্র ছিল এবং ওই লোকটি সেখান থেকে বের হতে পারেনি।

বুধবার রাতে একটি টুইট বার্তায় গভর্নর জিম জাস্টিস বলেন, আমি এই মর্মান্তিক হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারের জন্য প্রার্থনা করছি।

লোগান কাউন্টি কেনটাকি সীমান্তের কাছে অবস্থিত। এফএএ এবং ন্যাশনাল ট্রান্সপোর্টেশন সেফটি বোর্ড দুর্ঘটনার যৌথভাবে তদন্ত করবে।

ট্যাগ: